WHAT'S NEW?
Loading...

২০২২ টাটা আইপিএলের সেরা পারফরমার ও অন্যান্য

                                                              
                                                 ছবি:জস বাটলার



প্রিয় ক্রিকেট ডটকমঃ এবারের টাটা আইপিএলের শিরোপা জিতেছে নবাগত ফ্রাঞ্চাইজি গুজরাট টাইটানস। ফাইনালে রাজস্থান রয়্যালসকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় গুজরাট টাইটানস। এবারের টাটা আইপিএলের সেরা পারফরমারদের (ব্যাটার ও বোলার) পরিসংখ্যান এবং কে কোন পুরস্কার পেলেন সেসব  এখানে তুলে ধরছি। উল্লেখ্য ২০২২ টাটা আইপিএলের সর্বাধিক রান সংগ্রাহক হলেন  রাজস্থান রয়্যালসের জস বাটলার এবং সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি  রাজস্থান রয়্যালসের যুজবেন্দ্র চাহাল।


সেরা ব্যাটার  


১. জস বাটলার(রাজস্থান রয়্যালস) - ১৭ ম্যাচে ৮৬৩ রান।

২. কে এল রাহুল (লক্ষ্মৌ সুপার জায়ান্টস) - ১৫ ম্যাচে ৬১৬ রান।

৩. কুইন্টন ডি কক ( লক্ষ্মৌ সুপার জায়ান্টস) - ১৫ ম্যাচে ৫০৮ রান।

৪. হ্নাদিক পান্ডিয়া ( গুজরাট টাইটানস ) - ১৫ ম্যাচে ৪৮৭ রান।

৫. শুভমান গিল ( গুজরাট টাইটানস ) - ১৬ ম্যাচে ৪৮৩ রান।




সেরা বোলার 



১. যুজবেন্দ্র চাহাল (রাজস্থান রয়্যালস ) - ১৭ ম্যাচে ২৭ উইকেট।

২. ওয়ানান্দু হাসারাঙ্গা ( আরসিবি) - ১৬ ম্যাচে ২৬ উইকেট।

৩. কাগিছো রাবাদা ( পাঞ্জাব কিংস) - ১৩ ম্যাচে ২৩ উইকেট।

৪. উমরান মালিক ( সানরাইজার্স হায়দরাবাদ) - ১৪ ম্যাচে ২২ উইকেট।

৫. কুলদীপ যাদব ( দিল্লি ক্যাপিটালস) - ১৪ ম্যাচে ২১ উইকেট।




কে কোন পুরস্কার পেলেন 



এবারের টাটা আইপিএলে পুরস্কারের ছড়াছড়ি ছিল। দল রানার্সআপ হলেও ব্যক্তিগত সাফল্য বিবেচনায় সবচেয়ে বেশি পুরস্কার জিতেছেন রাজস্থান রয়্যালসের ব্যাটার জস বাটলার। আসুন এবারের টাটা আইপিএলে কে কোন  পুরস্কার পেলেন সেটি দেখে নিই।

১. চ্যাম্পিয়ন -গুজরাট টাইটানস (২০ কোটি রুপি )।

২.রানার্সআপ - রাজস্থান রয়ালস -(সাড়ে ১২ কোটি রুপি)।

৩.তৃতীয় স্থান - আরসিবি (৭ কোটি রুপি)।

৪.চতুর্থ স্থান - লক্ষ্মৌ সুপার জায়ান্টস (সাড়ে ৬কোটি রুপি)।

৫.. মোষ্ট ভেলিয়েবুল প্লেয়ার অব দ্য সিজন - জস বাটলার (১০ লাখ রুপি)।

২.ইমার্জিং প্লেয়ার অব দ্য ইয়ার - উমরান মালিক (১০ লাখ রুপি)।

৩. ম্যান অব দ্য টুর্নামেন্ট - জস বাটলার (১০ লাখ রুপি)।

৪. ম্যান অব দ্য ফাইনাল - হ্নাদিক পান্ডিয়া (৫ লাখ রুপি)।

৫. সর্বোচ্চ রান  - জস বাটলার ( ১০ লাখ রুপি)।

৬. সর্বোচ্চ উইকেট - যুজবেন্দ্র চাহাল (১০ লাখ রুপি)।

৭. সর্বাধিক ছক্কা - জস বাটলার ( ১০ লাখ রুপি)।

৮. সর্বাধিক চার - জস বাটলার (১০ লাখ রুপি)।

৯. গেমচেঞ্জার অব দ্য সিজন - জস বাটলার (১০ লাখ রুপি)।

১০. পাওয়ার প্লে অব দ্য সিজন - জস বাটলার (১০ লাখ রুপি)।

১১. সুপার স্ট্রাইকার অব দ্য সিজন - দীনেশ কার্তিক (১০ লাখ রুপি)।

১২. ফাষ্টেষ্ট ডেলিভারি অব দ্য সিজন - লোকি ফার্গুসন (১০ লাখ রুপি)।

১৩ . ক্যাচ অব দ্য সিজন - এবিন লুইস  (১০ লাখ রুপি)।




প্রথম আইপিএলেই চ্যাম্পিয়ন গুজরাট

                                                          



প্রিয় ক্রিকেট ডটকমঃ আইপিএলে প্রথমবার অংশ নিয়েই শিরোপা জয় করল গুজরাট টাইটানস। এবারের পুরো টাটা আইপিএলজুড়ে গুজরাট টাইটানস অসাধারণ ক্রিকেট উপহার দিতে সক্ষম হয়।এরই ধারাবাহিকতায় ২০২২ টাটা আইপিএলের ফাইনালে রাজস্থান রয়্যালসকে ৭ উইকেটের ব্যবধানে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হয় দলটি। গুজরাট টাইটানসের সাফল্যের কারণগুলো এখানে তুলে ধরছি।


অধিনায়ক হ্নাদিক পান্ডিয়ার নেতৃত্ব 



এবারের আইপিএল শুরুর পর থেকেই গুজরাট টাইটানসের সাফল্য ও তাদের অধিনায়ক হ্নাদিক পান্ডিয়ার অসাধারণ নেতৃত্ব নিয়ে ক্রিকেট বিশ্লেষকদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ দেখা গেছে। এবং শেষপর্যন্ত আইপিএল শিরোপা জয় করে হ্নাদিক পান্ডিয়া  নেতৃত্বের দারুণ এক স্বাক্ষর রাখতে সমর্থ হলেন।হ্নাদিক পান্ডিয়া নিজে যেমন ব্যাট ও বল হাতে দারুণ সক্রিয় ছিলেন তেমনি পুরো দলকে চমৎকারভাবে লিড দিয়েছেন ।


ফার্গুসন-শামি-রশিদ খানের দারুণ বোলিং 



এবারের আইপিএলের সূচনা থেকেই গুজরাট টাইটানসের তিন মূল বোলার ফার্গুসন,শামি ও রশিদ খান অসাধারণ বোলিং করেন।বিশেষত শামির কথা বলতে হয় যিনি নতুন বলে গুজরাট টাইটানসকে দারুণ এক আইপিএল উপহার দিয়েছেন। এছাড়া ফার্গুসনও এবারের আইপিএলে পেসের সাথে ভেরিয়েশন দিয়ে চমৎকার দক্ষতার পরিচয় দিয়েছেন।আর রশিদ খান পুরো আইপিএলজুড়ে গুজরাট টাইটানসের হয়ে তাঁর দায়িত্ব সফলভাবে (রান থামানো ও ব্রেকথ্রু) সম্পন্ন করেছেন।


হ্নাদিক পান্ডিয়া-গিল-মিলারের দারুণ ফর্ম



এবারের আইপিএলে গুজরাট টাইটানসের সাফল্যের পেছনে অধিনায়ক হ্নাদিক পান্ডিয়ার চমৎকার ব্যাটিং গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে।বিশেষত মিডল অর্ডারে হ্নাদিক পান্ডিয়া কিছু দারুণ ইনিংস খেলেছেন যার ফলে গুজরাট টাইটানসের টিম স্পিরিট বেড়েছে। এছাড়া টিটুয়েন্টি ক্রিকেটে একজন ইনফর্ম ওপেনারের গুরুত্ব কত বেশি সেটি গুজরাট টাইটানসের শুভমান গিল পুরো আইপিএলজুড়ে দেখিয়েছেন। সেইসাথে ডেভিড মিলারের সহজাত টনের্ডো ইনিংসগুলো গুজরাট টাইটানসের সাফল্যের পারদকে আরও বেগবান করেছে।


গুজরাট টাইটানসের চমৎকার টিমওয়ার্ক



এবারের টাটা আইপিএলে গুজরাট টাইটানসের সাফল্যের পেছনে একটি বড় কারণ ছিল তাদের অসাধারণ টিমওয়ার্ক।ওপেনিংয়ে গিল পুরো আইপিএলজুড়ে দায়িত্ব নিয়ে খেলেছে।মিডল অর্ডারে হ্নাদিক পান্ডিয়া ও ডেভিড মিলার সময়োপযোগী ও সহজাত ব্যাটিং করেছে। এছাড়া তিন মূল বোলার মোঃ শামি,লোকি ফার্গুসন ও রশিদ খান তাদের নামের প্রতি সুবিচার করতে সক্ষম হয়েছে। এসবকিছুর সাথে গুজরাট টাইটানসের ফিল্ডিং দুর্দান্ত ছিল।



গুজরাট টাইটানসের সেরা পারফরমার 



প্রথমবার আইপিএলে এসেই চ্যাম্পিয়ন হলো গুজরাট টাইটানস। নতুন এই ফ্রাঞ্চাইজির ২০২২ টাটা আইপিএলের শিরোপা জয়ের নেপথ্য কারিগরদের( ব্যাটার ও বোলার) পরিসংখ্যান দেখে নিন।


সেরা ব্যাটার 


১.হ্নাদিক পান্ডিয়া - ১৫ ম্যাচে ৪৮৭ রান 

২. শুভমান গিল  -   ১৬ ম্যাচে ৪৮৩ রান।

৩. ডেভিড মিলার -  ১৬ ম্যাচে ৪৮১ রান।

৪.ঋদ্ধিমান সাহা  - ১১ ম্যাচে ৩১৭ রান।

৫. রাহুল তেওয়াটিয়া - ১৬ ম্যাচে ২১৭ রান।



সেরা বোলার 


১. মোঃ শামি - ১৬ ম্যাচে ২০ উইকেট।

২. রশিদ খান - ১৬ ম্যাচে ১৯ উইকেট।

৩. লোকি ফার্গুসন - ১৩ ম্যাচে ১২ উইকেট।

৪. ইয়াস ধুল   -    ৯ ম্যাচে ১১ উইকেট।

৫. হ্নাদিক পান্ডিয়া - ১৫ ম্যাচে ৮ উইকেট।





আইপিএল ফাইনালের আগে দুদলের সেরা পারফরমার

                                                               



প্রিয় ক্রিকেট ডটকমঃ অবশেষে প্রাথমিক পর্ব এবং কোয়ালিফায়ার শেষে এবারের (২০২২) আইপিএলের দুই ফাইনালিস্ট  টিম চূড়ান্ত হয়েছে। আগামীকাল (২৯মে,২০২২) টাটা আইপিএলের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে । এবারের টাটা আইপিএলের ফাইনালের দুই প্রতিদ্বন্দ্বী টিম  হচ্ছে রাজস্থান রয়্যালস ও গুজরাট টাইটানস।  রাজস্থান রয়্যালস আইপিএলের এই আসরে দারুণ ক্রিকেট খেলছে । এদিকে গুজরাট টাইটানস প্রথম আসরেই রীতিমতো বাজিমাত করতে সক্ষম হয়েছে এবং এবারের আইপিএলের সবচেয়ে সফল টিম হিসেবে ফাইনালে পৌঁছেছে দলটি।আর এসবকিছু মিলিয়ে ২০২২ টাটা আইপিএলে একটি প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ফাইনালের আভাস মিলছে। আসুন ২০২২ টাটা আইপিএলের ফাইনালের আগে দুদলের সেরা পারফরমারদের পরিসংখ্যান দেখে নিই।


গুজরাট টাইটানসের সেরা পারফরমার 


এবারের টাটা আইপিএলের নবাগত টিম গুজরাট টাইটানস পুরো আইপিএলজুড়ে অসাধারণ ক্রিকেট খেলেছে। উল্লেখ্য হ্নাদিক পান্ডিয়ার নেতৃত্বে (গুজরাট টাইটানস) দলটি এই আইপিএলে সবচেয়ে কম ম্যাচ হেরেছে। ফাইনালের আগে গুজরাট টাইটানসের সেরা ব্যাটার ও বোলারদের পরিসংখ্যান দেখে নিন।


সেরা ব্যাটার 


১. হ্নাদিক পান্ডিয়া - ১৪ ম্যাচে ৪৫৩ রান।

২. ডেভিড মিলার - ১৫ ম্যাচে ৪৫০ রান।

৩. শুভমান গিল - ১৫ ম্যাচে ৪৩৮ রান।

৪. ঋদ্ধিমান সাহা - ১০ ম্যাচে ৩১২ রান।





সেরা বোলার 


১. মোহাম্মদ শামি - ১৫ ম্যাচে ১৯ উইকেট।

২. রশিদ খান - ১৫ ম্যাচে ১৮ উইকেট।

৩. লোকি ফার্গুসন - ১২ ম্যাচে ১২ উইকেট।

৪. ইয়াস ধুল - ৮ ম্যাচে ১০ উইকেট।


রাজস্থান রয়্যালসের সেরা পারফরমার 


রাজস্থান রয়্যালস এবার দারুণ একটি আইপিএল সিজন অতিক্রম করছে। রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে এবার জস বাটলার,যুজবেন্দ্র চাহালরা চমৎকার ক্রিকেট উপহার দিয়ে যাচ্ছেন। ফাইনালের আগে রাজস্থান রয়্যালসের সেরা ব্যাটার ও বোলারদের পরিসংখ্যান দেখে নিন।


সেরা ব্যাটার 



১. জস বাটলার - ১৬ ম্যাচে ৮২৪ রান।

 ২. সঞ্জু স্যামসন - ১৬ ম্যাচে  ৪৪৪ রান।

৩. দেবদূত পাড্ডিকেল - ১৬ ম্যাচে ৩৭৪ রান।

৪. শিমরন হেটমায়ার -১৪ ম্যাচে ৩০৩ রান 


সেরা বোলার 


১. যুজবেন্দ্র চাহাল - ১৬ ম্যাচে ২৬ উইকেট।

২. প্রশিদ্ধ কৃষ্ণ - ১৬ ম্যাচে ১৮ উইকেট।

৩. ট্রেন্ট বোল্ট - ১৫ ম্যাচে ১৫ উইকেট।

৪. রবিচন্দ্রন অশ্বিন - ১৬ ম্যাচে ১২ উইকেট।

আফগানিস্তানের নতুন বোলিং কোচ উমর গুল

                                                              


প্রিয় ক্রিকেট ডটকমঃ পাকিস্তানের সাবেক পেসার উমর গুলকে আফগানিস্তানের বোলিং কোচ হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।এর আগে সাবেক এই পেসার আফগানিস্তানের বোলিং কনসালটেন্ট হিসেবে কাজ করেছেন। উল্লেখ্য উমর গুল এর আগে আর কোন আন্তর্জাতিক দলের কোচের দায়িত্ব পালন করেননি।তবে গুল পিএসএলে কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটর্সের বোলিং কোচ হিসেবে কিছুদিন কাজ করেছেন।


উমর গুলের ক্যারিয়ারচিত্র 


পাকিস্তানের সাবেক পেসার উমর গুল একসময় বেশ সফল বোলার হিসেবে পরিচিত ছিলেন।গতির সাথে নিখুঁত লাইন লেংথের জন্য গুল একসময় পাকিস্তানের পেস আক্রমণের মূল ভিত্তি ছিলেন। এছাড়া ক্রিকেটের তিন ফরম্যাটেই এই পেসারের সফলতার নজির রয়েছে।উমর গুলের ক্যারিয়ারচিত্র এখানে তুলে ধরছি।


টেস্ট ক্যারিয়ার 


উমর গুল পাকিস্তানের হয়ে ৪৭টি টেস্ট খেলে ১৬৩টি উইকেট নেন। টেস্ট ক্রিকেটে গুল ৪ বার ম্যাচে ৫ উইকেট নিয়েছেন।


ওয়ানডে ক্যারিয়ার 


উমর গুল পাকিস্তানের হয়ে ১১৬টি ওয়ানডে খেলে মোট ১৬১টি উইকেট নেন।এই পেসার ওয়ানডে ক্রিকেটে ২বার ম্যাচে ৫ উইকেট নিয়েছেন।


টিটুয়েন্টি ক্যারিয়ার 


উমর গুল পাকিস্তানের সফল টিটুয়েন্টি বোলারদের মধ্যে অন্যতম।গুল পাকিস্তানের হয়ে ৫২টি টিটুয়েন্টি ম্যাচ খেলে ৭৪টি উইকেট নিয়েছেন।

ফাষ্টক্লাস ক্যারিয়ার 


উমর গুল পেশোয়ার,ওয়েষ্টার্ন অষ্ট্রেলিয়া প্রভৃতি টিমের হয়ে ফাষ্টক্লাস ক্রিকেট খেলেছেন।উমর গুল ৮৪টি ফাষ্টক্লাস ম্যাচ খেলেছেন যেখানে তাঁর মোট উইকেট সংখ্যা ৩২৭।ফাষ্টক্লাস ক্রিকেটে এই পেসার ১৬বার ম্যাচে ৫ উইকেট নিয়েছেন।


কোচিং ক্যারিয়ার 


উমর গুল খেলোয়াড়ী জীবন শেষে আফগানিস্তানের বোলিং কনসালটেন্ট হিসেবে কাজ করেছেন। এছাড়া পিএসএলে কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটর্সের কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।


অষ্ট্রেলিয়ার নতুন সহকারী কোচ ভেট্টোরি

                                                               


প্রিয় ক্রিকেট ডটকমঃ সম্প্রতি সাবেক কিউই অলরাউন্ডার ডেনিয়েল ভেট্টোরিকে অষ্ট্রেলিয়ার সহকারী কোচ নিযুক্ত করা হয়েছে।ডেনিয়েল ভেট্টোরি বাংলাদেশ জাতীয় দল, আইপিএল, সিপিএলে কোচিংয়ের দায়িত্ব পালন করেছেন। সাবেক এই কিউই অলরাউন্ডার সফল খেলোয়াড়ী জীবন শেষে কোচ হিসেবেও বেশ সুনাম অর্জন করেছেন।


ডেনিয়েল ভেট্টোরির ক্যারিয়ারচিত্র 


নিউজিল্যান্ডের হয়ে সফল খেলোয়াড়ী জীবন শেষে কোচ হিসেবে বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছেন ভেট্টোরি। সাবেক এই কিউই গ্ৰেট বাংলাদেশ জাতীয় দল, রয়াল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু,বার্বাডোজ রয়ালস, ব্রিসবেন হিটস প্রভৃতি দলের হয়ে কাজ করেছেন।


টেস্ট ক্যারিয়ার 


ডেনিয়েল ভেট্টোরিকে নিউজিল্যান্ডের সর্বকালের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার হিসেবে ধরা হয়।খেলোয়াড়ী জীবনে অত্যন্ত চৌকস স্পিনার ও অলরাউন্ডার হিসেবে পরিচিত ছিলেন ভেট্টোরি। উল্লেখ্য সাবেক এই কিউই গ্ৰেট ১১৩টি টেস্ট খেলে ব্যাট হাতে ৪,৫৩১ রান ও বল হাতে ৩৬২ উইকেট শিকার করেন। তিনি টেস্ট ক্রিকেটে ২০বার ম্যাচে ৫ উইকেট ও  ৩বার ম্যাচে ১০ উইকেট নিয়েছেন।


ওয়ানডে ক্যারিয়ার 


ভেট্টোরি নিউজিল্যান্ডের হয়ে ২৯৫টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছেন যেখানে ব্যাট হাতে ২,২৫৩ রান ও বল হাতে ৩০৫টি উইকেট নিয়েছেন এই অলরাউন্ডার। ভেট্টোরি ২বার ম্যাচে ৫ উইকেট নিয়েছেন।


টিটুয়েন্টি ক্যারিয়ার 


ডেনিয়েল ভেট্টোরি নিউজিল্যান্ডের হয়ে ক্রিকেটের তিন ফরম্যাটেই সফলতা দেখিয়েছেন। ভেট্টোরি  ৩৪টি আন্তর্জাতিক টিটুয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন যেখানে তাঁর মোট রানসংখ্যা ২০৫ ও উইকেটসংখ্যা ৩৮।


ফাষ্টক্লাস ক্যারিয়ার 


ডেনিয়েল ভেট্টোরির ফাষ্টক্লাস ক্যারিয়ারও অত্যন্ত সমৃদ্ধ। সাবেক এই কিউই অলরাউন্ডার নর্দান ডিষ্টিক, নটিংহ্যাম্পশায়ার, ওয়ারউইকশায়ার, কুইন্সল্যান্ড, ব্রিসবেন হিট, দিল্লি ডেয়ারডেবিলস,জামাইকা তালাওয়াশ প্রভৃতি টিমের হয়ে ফাষ্টক্লাস ক্রিকেট খেলেছেন।ভেট্টোরি ১৭৪টি ফাষ্টক্লাস ম্যাচ খেলে ব্যাট হাতে ৬,৬৯৫ রানের পাশাপাশি বল হাতে ৫৬৫টগ উইকেট নেন।



কোচিং ক্যারিয়ার 


ডেনিয়েল ভেট্টোরি সফল খেলোয়াড়ী জীবন শেষে কোচ হিসেবেও বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন। সাবেক এই কিউই অলরাউন্ডার বাংলাদেশ জাতীয় দল, আইপিএল, সিপিএল,বিগব্যাশে কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।ডেনিয়েল ভেট্টোরি সর্বশেষ অষ্ট্রেলিয়ার সহকারী কোচ নিযুক্ত হলেন।


ব্রায়ান লারা আমার প্রিয় ক্রিকেটার : ক্রিস জর্ডান

                                                             
                                            ছবি : ক্রিস জর্ডান
                                                        


প্রিয় ক্রিকেট ডটকমঃ টিটুয়েন্টি ক্রিকেটের জনপ্রিয় মুখ ক্রিস জর্ডান। বার্বাডোজে জন্মগ্ৰহনকারী এই পেসার ইংল্যান্ড  জাতীয় দলের পাশাপাশি বিশ্বের সব বড় ফ্রাঞ্চাইজি লিগের নিয়মিত মুখ ।অত্যন্ত চৌকস ও বুদ্ধিদীপ্ত বোলিংয়ের জন্য ক্রিস জর্ডান টিটুয়েন্টি ক্রিকেটে বেশ জনপ্রিয়।ক্রিকট্যাকার থেকে ক্রিস জর্ডানের (২০২১ সালের ৬ জুলাই নেয়া) একটি সাক্ষাৎকার এখানে তুলে ধরছি। ভাষান্তর : প্রভাকর চৌধুরী।


ক্রিকট্যাকার : ২০২১ সালের আইপিএলে আপনার প্রিয় স্মৃতি ?


ক্রিস জর্ডান : রয়াল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর বিপক্ষে (আহমেদাবাদে) ৩৪ রানে জয়লাভ করার অনুভূতি অন্যরকম ছিল।সেই ম্যাচে আমাদের টিমের পারফরম্যান্স দুর্দান্ত ছিল।


ক্রিকট্যাকার : আপনার প্রিয় ক্রিকেটার কে ?


ক্রিস জর্ডান : ব্রায়ান লারা আমার প্রিয় ক্রিকেটার।আমি ক্যারিবিয়ানে শৈশব থেকেই লারার খেলার অনুরাগী ছিলাম।সে এক নিখুঁত ব্যাটসম্যান।পেস ও স্পিনের বিপক্ষে তাঁর  সাবলিল ব্যাটিং আমি সবচেয়ে বেশি উপভোগ করেছি।


ক্রিকট্যাকার : ক্রিকেটের আঙ্গিনায় আপনার প্রিয় বন্ধু কে ? 


ক্রিস জর্ডান : আমি অনেককেই বন্ধু হিসেবে পেয়েছি তবে জোফরা আর্চার ও মঈন আলী বন্ধু হিসেবে দারুণ। এছাড়া যখন ওয়েস্ট ইন্ডিজে খেলেছি তখন ক্রিক এডওয়ার্ডস আমার ভালো বন্ধু ছিল।


 

ক্রিকট্যাকার : ২০২১ সালের আইপিএলে কোন প্লেয়ারের খেলা আপনার নজর কেড়েছে ?


ক্রিস জর্ডান : আমি আমার টিমে খেলা শাহরুখ খানের কথা বলব।সে তাঁর প্রতিভার স্বাক্ষর রাখতে সক্ষম হয়েছে।



ক্রিকট্যাকার : টিটুয়েন্টি ক্রিকেটে ইংল্যান্ড ও ওয়েষ্ট ইন্ডিজের মধ্যে কোন টিমকে এগিয়ে রাখবেন ?


ক্রিস জর্ডান : ইংল্যান্ড।



ক্রিস জর্ডান : বিশেষ কোন ক্রিকেটারের বিশেষ একটি গুণ যদি নিজের মধ্যে দেখতে চান তবে কার কথা বলবেন ?


ক্রিস জর্ডান : জোফরা আর্চারের নিখুঁত পেস ও কিয়েরন পোলার্ডের বাউন্ডারী হাঁকানোর দক্ষতা।


ক্রিকট্যাকার : নিজের বড় একটি দুর্বলতার কথা বললে কোনটির কথা বলবেন ?


ক্রিস জর্ডান : আমি কোথাও আবদ্ধ থাকতে পারিনা।কেন জানি এটি আমার পছন্দ নয়।



ক্রিকট্যাকার : আপনার টিমের কোচ (পাঞ্জাব কিংস) অনিল কুম্বলে সম্পর্কে তিন শব্দে কিছু বলুন ।


ক্রিস জর্ডান : উদ্যমী, শান্ত ও বিচক্ষণ।



ক্রিকট্যাকার : স্টুয়ার্ট ব্রড ও জোফরা আর্চারের মধ্যথেকে একজনকে বেছে নিতে বললে কাকে নেবেন?


ক্রিস জর্ডান : দুজনকেই নেবো তবে ব্রডকে লাল বলের জন্য এবং  আর্চারকে সাদা বলের জন্য ।



ক্রিকট্যাকার : ক্যারিয়ারের সেরা একটি অনুভূতি ?


ক্রিস জর্ডান : ২০১৪ সালে যেদিন ইংল্যান্ডের হয়ে ওয়েষ্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বার্বাডোজে মাঠে নামি এবং আমার পরিবারের সদস্যদের সামনে ব্যাট ও বলে দারুণ পারফরম্যান্স করি সেদিনের অনুভূতি সত্যিই অন্যরকম ছিল।



ক্রিকট্যাকার : ভারতের যে বিষয়টি আপনার খুব পছন্দ ?


ক্রিস জর্ডান : ভারতের ক্রিকেটপাগল দর্শক আমার খুব প্রিয়। এছাড়া এখানে ক্রিকেট সম্পর্কে দর্শকদের ব্যাপক জ্ঞান রয়েছে যা আমার ভালো লাগে।



ক্রিকট্যাকার : ক্যাপ্টেন হিসেবে মরগান ও রুটের মধ্যে কাকে এগিয়ে রাখবেন?


ক্রিস জর্ডান : আমি মরগানের অধীনে বেশি খেলেছি তাই তাকেই এগিয়ে রাখবো।



ক্রিস জর্ডান : ক্রিকেটের বাইরে আর যা হতে চান ?


ক্রিকট্যাকার : স্কাইডাইভ আমার প্রিয় একটি প্যাশন।



ক্রিকট্যাকার : কখন খুব বিরক্ত হন ?


ক্রিস জর্ডান : যখন কোন একটি বিষয় প্রচুর অনুশীলন করেও সহজে আয়ত্ত্ব করতে পারিনা তখন খুব বিরক্ত হই।



ক্রিকট্যাকার : আপনার সবচেয়ে বড় অনুপ্রেরণা ?


ক্রিস জর্ডান : আমার বাবা।



ক্রিকট্যাকার : আপনার টিমের ক্যাপ্টেন(পাঞ্জাব কিংস) কে এল রাহুল সম্পর্কে কিছু বলুন ?


ক্রিস জর্ডান : সে এক জিনিয়াস ।



ক্রিকট্যাকার : ক্রিস গেইল এবং জনি বেয়ারস্টোর মধ্যে কে বেশি পাওয়ারফুল হিটার ?



ক্রিস জর্ডান : গেইল।



ক্রিকট্যাকার : আপনাকে রান্না অথবা নৃত্য করতে বললে কোনটি বেছে নেবেন ?


ক্রিস জর্ডান : রান্না।



ক্রিকট্যাকার : নিজের সম্পর্কে এককথায় কিছু বলতে বললে  যা বলবেন ?


ক্রিস জর্ডান : শান্তিপ্রিয় ।




বাংলাদেশের শীর্ষ টেস্ট পার্টনারশিপ

                                                               


প্রিয় ক্রিকেট ডটকমঃ টেস্ট ক্রিকেটকে বলা হয় পার্টনারশিপের খেলা। সম্প্রতি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মিরপুর টেস্টে দারুণ এক পার্টনারশিপ গড়েন বাংলাদেশের দুই ব্যাটার মুশফিকুর রহিম ও লিটন দাস।এরফলে শুরুর ব্যাটিং বিপর্যয় এড়াতে সক্ষম হয় বাংলাদেশ। উল্লেখ্য টেস্ট ক্রিকেটের এযাবতকালের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় পার্টনারশিপ গড়েন শ্রীলঙ্কার সাবেক দুই গ্ৰেট কুমার সাঙ্গাকারা ও মাহেলা জয়াবর্ধনে (৬২৪রান, প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা)। আসুন বাংলাদেশের শীর্ষ টেস্ট পার্টনারশিপগুলো দেখে নিই।


বাংলাদেশের শীর্ষ  টেস্ট পার্টনারশিপ 


টেস্ট ক্রিকেটে পার্টনারশিপ খুবই ভাইটাল একটি বিষয়। এখানে পার্টনারশিপ ছাড়া পাঁচদিন খেলায় টিকে থাকা কঠিন। আসুন বাংলাদেশের শীর্ষ টেস্ট পার্টনারশিপগুলো  দেখে নিই।


সাকিব - মুশফিক  ৩৫৯


বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় টেষ্ট পার্টনারশিপ (৩৫৯রান) গড়েন সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিম (২০১৭),প্রতিপক্ষ নিউজিল্যান্ড।

তামিম - ইমরুল কায়েস ৩১২ 


বাংলাদেশের অন্যতম সেরা একটি টেস্ট পার্টনারশিপ গড়েন (৩১২রান)তামিম ইকবাল ও ইমরুল কায়েস (২০১৫), প্রতিপক্ষ পাকিস্তান।


মুশফিক - লিটন ২৭২ 


বাংলাদেশের অন্যতম সেরা একটি টেস্ট পার্টনারশিপ গড়েন(২৭২ রান) মুশফিকুর রহিম ও লিটন দাস(২০২২), প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা।


আশরাফুল-মুশফিক ২৬৭ 


বাংলাদেশের অন্যতম সেরা একটি টেস্ট পার্টনারশিপ গড়েন (২৬৭রান)মোঃ আশরাফুল ও মুশফিকুর রহিম (২০১৩), প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা।


মুমিনুল-মুশফিক ২৬৬


বাংলাদেশের অন্যতম সেরা একটি টেস্ট পার্টনারশিপ গড়েন (২৬৬রান) মুমিনুল হক ও মুশফিকুর রহিম(২০১৮), প্রতিপক্ষ জিম্বাবুয়ে।


মুমিনুল-শান্ত ২৪২ 


বাংলাদেশের অন্যতম সেরা একটি টেস্ট পার্টনারশিপের রূপকার(২৪২রান) মুমিনুল হক ও নাজমুল হোসেন শান্ত (২০২১), প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা।

মুমিনুল-মুশফিক ২৩৬ 


বাংলাদেশের অন্যতম সেরা একটি টেস্ট পার্টনারশিপের রূপকার (২৩৬রান) মুমিনুল হক ও মুশফিকুর রহিম (২০১৮), প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা।

সৌম্য - মাহমুদুল্লাহ ২৩৫ 


বাংলাদেশের অন্যতম সেরা একটি টেস্ট পার্টনারশিপের রূপকার (২৩৫ রান)সৌম্য সরকার ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ (২০১৯), প্রতিপক্ষ নিউজিল্যান্ড।

নামিবিয়ার প্রথম টিটুয়েন্টি সিরিজ জয়

                                                              



প্রিয় ক্রিকেট ডটকমঃ সম্প্রতি জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তাদের মাটিতে টিটুয়েন্টি সিরিজ জিতেছে নামিবিয়া। তুলনামূলকভাবে দুর্বল ক্রিকেটশক্তি নামিবিয়ার জন্য নিঃসন্দেহে এটি বড় এক রেকর্ড।এটিই কোন শক্তিশালী  প্রতিপক্ষের বিপক্ষে নামিবিয়ার প্রথম সিরিজ জয়ের রেকর্ড। জিম্বাবুয়ে সফররত নামিবিয়া জাতীয় দল স্বাগতিকদের বিপক্ষে ৫ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে ৩-২ ব্যবধানে জয়লাভ করে। আসুন  নামিবিয়ার টিটুয়েন্টি রেকর্ড ও শীর্ষ টিটুয়েন্টি পারফরমারদের পরিসংখ্যান দেখে নিই।


নামিবিয়ার  টিটুয়েন্টি পরিসংখ্যান 

নামিবিয়া ১৯৯২ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি)  সদস্য হয়।এরপর ২০১৯ সালে নামিবিয়া প্রথম আন্তর্জাতিক টিটুয়েন্টি ম্যাচ খেলে। ইতিমধ্যে নামিবিয়া ৩৮টি আন্তর্জাতিক টিটুয়েন্টি ম্যাচ খেলে ২৬টিতে জয় পেয়েছে ও ১২টি ম্যাচে পরাজিত হয়েছে। আন্তর্জাতিক টিটুয়েন্টি ক্রিকেটে জেরার্ড ইরাসমাস নামিবিয়ার হয়ে সবচেয়ে বেশি রান(৯২৭রান) করেছেন। আন্তর্জাতিক টিটুয়েন্টি ক্রিকেটে নামিবিয়ার সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি জেন ফ্রাঙ্কলিন (৫১ উইকেট)।


নামিবিয়ার শীর্ষ টিটুয়েন্টি পারফরমার 


ক্রিকেটের নবীন সদস্য হলেও নামিবিয়ার হয়ে বেশকজন সেরা ব্যাটার চমৎকার টিটুয়েন্টি পারফরম্যান্স করছেন। নামিবিয়ার শীর্ষ পাঁচ টিটুয়েন্টি ব্যাটার ও বোলারের পরিসংখ্যান এখানে তুলে ধরা হলো।

শীর্ষ ব্যাটার 

১. জেরার্ড ইরাসমাস - ৩৮ ম্যাচে ৯২৭ রান।

২.ক্রেইগ উইলিয়ামস - ৩৫ ম্যাচে ৮০৫ রান।

৩.স্টিফেন বার্ড - ২৫ ম্যাচে ৬৬৫ রান।

৪. জেজে স্মিথ - ২৯ ম্যাচে ৫২৫ রান।

৫. জেপি কর্টজে - ১৮ ম্যাচে ৩৭৭ রান।



শীর্ষ বোলার 

১.জেন ফ্রাঙ্কলিন -৩৫ ম্যাচে ৫১ উইকেট ।

২. বার্নাড স্কলজ - ৩৫ ম্যাচে ৩৯ উইকেট।

৩. জেজে স্মিথ -২৯ ম্যাচে  ৩১ উইকেট।

৪. ক্রিষ্টি ভিলজয়েন-১২ ম্যাচে ২০ উইকেট।

৫. জেরার্ড ইরাসমাস - ৩৮ ম্যাচে ১৯ উইকেট।



আজ জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের জন্মবার্ষিকী

                                                         


প্রিয় ক্রিকেট ডটকমঃ আজ ২৫শে মে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের জন্মবার্ষিকী।প্রিয় ক্রিকেট ডটকম'এর পক্ষ থেকে এই বিশেষ দিনে কবির স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করছি। এবং সেইসাথে এখানে কাজী নজরুল ইসলামের জীবন ও গুরুত্বপূর্ণ সৃষ্টিকর্ম সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য তুলে ধরার চেষ্টা করছি।


জীবনী


১. কাজী নজরুল ইসলাম জন্মগ্ৰহন করেন - ২৫মে,১৮৯৯ খ্রিষ্টাব্দে।

২ ‌‌‌. কাজী নজরুল ইসলামের পিতা-মাতা - কাজী ফকির আহমেদ ও জাহেদা খাতুন।

৩. কাজী নজরুল ইসলামের জাতীয়তা - ব্রিটিশ ভারতীয়(১৮৯৯-১৯৪৭), ভারতীয় (১৯৪৭-১৯৭৬),বাংলাদেশী (১৯৭২-১৯৭৬)।

৪. নজরুল বাকশক্তি হারান - ৪০ বছর বয়সে।

৫. নজরুলকে বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক নাগরিকত্ব দেয়া হয় - ১৯৭৬ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারী।

৬. কাজী নজরুল ইসলামকে বাংলাদেশের জাতীয় কবি হিসেবে স্বীকৃতি দেয়া হয় - ১৯৭২ সালে।

৭.নজরুলকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডিলিট দেয়া হয় - ১৯৭৪ সালে।

৮. রবীন্দ্র ভারতী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে নজরুলকে ডিলিট দেয়া হয় - ১৯৬৯ সালে।

৯. ভারত সরকার নজরুলকে পদ্মভূষণ উপাধিতে ভূষিত করেন - ১৯৬০।

১০. কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে নজরুলকে জগত্তারিণী পদক দেয় - ১৯৪৫ সালে।

১১. কাজী নজরুল ইসলাম একুশে পদক লাভ করেন - ১৯৭৬ সালে।

১২. বিবিসি'র বাংলা বিভাগ কর্তৃক (২০০৪) জরিপকৃত সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালির তালিকায় নজরুল - তৃতীয়।

১৩.কাজী নজরুল ইসলাম মৃত্যুবরণ করেন - ২৯ আগষ্ট,১৯৭৬।


সৃষ্টিকর্ম 


১. বাংলা সাহিত্যে (কাব্য) সর্বপ্রথম প্রচুর আরবি ফারসি শব্দ ব্যবহার করেন - কাজী নজরুল ইসলাম।

২. নজরুল তাঁর যে গ্ৰন্থ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে উৎসর্গ করেন - সঞ্চিতা।

৩. নজরুলের যে গ্ৰন্থ প্রথম বাজেয়াপ্ত হয় - বিষের বাঁশি।

৪. কাজী নজরুল ইসলামের রচিত কাব্যগ্রন্থ - ২৩টি।

৫. নজরুলের সর্বশেষ কাব্যগ্ৰন্থ - নির্ঝর।

৬. কাজী নজরুল ইসলাম সম্পাদিত পএিকা - ধূমকেতু, লাঙ্গল, দৈনিক নবযুগ।

৭.নজরুলের যে সঙ্গীত বাংলাদেশ পদাতিক বাহিনীর 'রণসঙ্গীত' হিসেবে স্বীকৃত - চল্ চল্ চল্।

৮. নজরুল যে চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন - ধ্রুব।

৯. 'বিশ্বে যা কিছু মহান সৃষ্টি  চিরকল্যাণকর /অর্ধেক তার করিয়াছে নারী অর্ধেক তার নর'এই কবিতাংশের রচয়িতা - কাজী নজরুল ইসলাম।

১০. নজরুলের কবিতা সর্বপ্রথম প্রকাশিত হয় - বঙ্গীয় মুসলিম সাহিত্য পত্রিকায়।

১১. বাংলা ভাষায় কে একই সাথে ভজন, ইসলামী সঙ্গীত ও গজল রচনা করেন- কাজী নজরুল ইসলাম।

১২. নজরুলের উল্লেখযোগ্য প্রবন্ধগ্ৰন্থ - দুর্দিনের যাত্রী,যুগবাণী,রুদ্রমঙ্গল।

১৩. নজরুলের উল্লেখযোগ্য কাব্যগ্ৰন্থ - অগ্নিবীণা, নির্ঝর,সিন্দুহিন্দোল,বিষের বাঁশি, ভাঙার গান।

আইপিএলের পর জাতীয় দলে উমরান মালিক

                                                                
                                           ছবি: উমরান মালিক



প্রিয় ক্রিকেট ডটকমঃ আইপিএলে গতির ঝড় তোলা আলোচিত পেসার উমরান মালিক এবার ভারতের জাতীয় দলে ডাক পেলেন। কাশ্মীরে জন্ম নেয়া এই চৌকস  পেসার আসন্ন দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের জন্য ভারতীয় টিটুয়েন্টি দলে জায়গা পেয়েছেন। এছাড়া উমরান মালিক ছাড়াও প্রথমবার ভারতের জাতীয় দলে সুযোগ পেয়েছেন আরেক তারকা পেসার অশ্বদীপ সিং।


উমরান মালিকের ক্যারিয়ারচিত্র 


উমরান মালিক জম্মুকাশ্মীরে ফাষ্টক্লাস ক্রিকেট শুরু করেন । পরবর্তীতে ২০২১ সালে আইপিএলে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে খেলার সুযোগ পান। নিজের প্রথম আইপিএলেই গতির জন্য তিনি বেশ আলোচিত হন। এবারের আইপিএলেও এই পেসার সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে চমৎকার বোলিং করেন।আর এরই ধারাবাহিকতায় এই পেসার এবার ভারতের টিটুয়েন্টি দলে ডাক পেলেন। উমরান মালিক ১টি লিষ্ট এ ম্যাচ খেলেছেন যেখানে তাঁর ১টি উইকেট রয়েছে। এছাড়া আইপিএলে ইতিমধ্যে ১৭ ম্যাচ খেলে ২৪টি উইকেট নিয়েছেন এই পেসার।




দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ভারতের টিটুয়েন্টি স্কোয়াড 


আগামী ৯ জুন দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ভারতের পাঁচ ম্যাচের টিটুয়েন্টি সিরিজ শুরু হবে।এই সিরিজটি ভারতে অনুষ্ঠিত হবে। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ভারতের টিটুয়েন্টি স্কোয়াড দেখে নিন।

কে এল রাহুল (অধিনায়ক),রিশব পন্ত(সহঅধিনায়ক),ঋতুরাজ গায়কোয়াড়,ইষাণ কিষাণ,দিপক হুদা,শ্রেয়াস আয়ার,দিনেশ কার্তিক,হ্নাদিক পান্ডিয়া,যুজবেন্দ্র চাহাল, ভেঙ্কটেশ আয়ার,কুলদীপ যাদব,অক্ষয় প্যাটেল,রবি বিষ্ণো,ভুবনেশ্বর কুমার,হার্শাল প্যাটেল,আভিস খান,অশ্বদীপ সিং, উমরান মালিক।

 

যেসব সেরা প্লেয়ারকে আইপিএল প্লেঅফে দেখা যাবে না

                                                     
                                        ছবি:শিকর ধাওয়ান



প্রিয় ক্রিকেট ডটকমঃ নিজের দল প্লেঅফে উঠতে ব্যর্থ হয়েছে তাই সেরা পারফরম্যান্স করেও অনেক সেরা প্লেয়ারকে এবারের আইপিএল প্লেঅফে দেখা যাবে না।এক্ষেত্রে ডেভিড ওয়ার্নার,কাগিছো রাবাদা,আন্দ্রে রাসেল,শিকর ধাওয়ানের নাম বিশেষভাবে বলতে হয়। যদিও এমনটি প্রতি আইপিএলেই ঘটে থাকে। উল্লেখ্য এবারের আইপিএলের প্রথম কোয়ালিফায়ার আজ (২৪মে)অনুষ্ঠিত হবে এবং ২৭মে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার অনুষ্ঠিত  হবে । ২৯মে এবারের আইপিএলের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে।আসুন দেখে নিই এবারের আইপিএলে সেরা পারফরম্যান্স করেও কোন সেরা প্লেয়ারদের প্লেঅফে দেখা যাবে না।


যেসব সেরা ব্যাটার  এবার প্লেঅফে নেই


যেসব সেরা ব্যাটারকে (শীর্ষ পাঁচ)এবারের আইপিএল প্লেঅফে দেখা যাবে না তাদের পরিসংখ্যান দেখে নিন।


শিকর ধাওয়ান 


শিকর ধাওয়ান এবার পাঞ্জাব কিংসের হয়ে ১৪ ম্যাচে ৪৬০ রান করেছেন।তাকেও এবারের আইপিএল প্লেঅফে দেখা যাবে না।

লিয়াম লিভিংস্টোন 


এবারের আইপিএলের প্রথম পর্বে দারুণ খেললেও পাঞ্জাবের ব্যাটার লিয়াম লিভিংস্টোনকে প্লেঅফে দেখা যাবে না ।লিয়াম লিভিংস্টোন এবার ১৪ ম্যাচ খেলে ৪৩৭ রান করেন।

ডেভিড ওয়ার্নার 


ডেভিড ওয়ার্নার দিল্লি ক্যাপিটালসের হয়ে এবারও দারুণ ব্যাট করেছেন ।তবে দল প্লেঅফে উঠতে ব্যর্থ হওয়ায় তাকে প্লেঅফে দেখা যাবে না। উল্লেখ্য ওয়ার্নার এবারের আইপিএলে ১২ ম্যাচ খেলে ৪৩২ রান করেন।

ইশান কিষাণ 


এবারের আইপিএলে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স খুব বাজে পারফরম্যান্স করেছে যদিও তাদের ওপেনার ইষাণ কিষাণ ব্যাট হাতে সফল ছিলেন।ইষাণ কিষাণ এবার ১৪ ম্যাচ খেলে ৪১৮ রান করেছেন।

শ্রেয়াস আয়ার 


কেকেআরের ক্যাপ্টেন শ্রেয়াস আয়ারকেও এবার আইপিএলের প্লেঅফে দেখা যাবে না।আয়ার এবার আইপিএলে ১৪ ম্যাচ খেলে মোট ৪০১ রান করেন।

যেসব সেরা বোলার  এবার প্লেঅফে নেই 


দল প্লেঅফে উঠতে পারেনি তাই এবারের আইপিএলে বেশকজন সেরা বোলারকে প্লেঅফে দেখা যাবে না।যেসব সেরা বোলারকে (শীর্ষ পাঁচ) এবার আইপিএল প্লেঅফে দেখা যাবে না তাদের পরিসংখ্যান দেখে নিন।

কাগিছো রাবাদা 


কাগিছো রাবাদা এবার পাঞ্জাব কিংসের হয়ে দারুণ পারফরম্যান্স করেন।তবে এই পেসার কেও প্লেঅফে দেখা যাবে না।রাবাদা এবার ১৩ ম্যাচ খেলে ২৩টি উইকেট নেন।


উমরান মালিক 


তরুণ পেসার উমরান মালিক এবারের আইপিএলে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে চমৎকার বোলিং করেন।তবে তাকেও এবারের আইপিএল প্লেঅফে দেখা যাবে না। উমরান মালিক ১৪ ম্যাচ খেলে ২২টি উইকেট নিয়েছেন।


কুলদীপ যাদব 


কুলদীপ যাদব এবারের আইপিএলের অন্যতম সেরা বোলার। তবে তাকেও প্লেঅফে দেখা যাবে না।কুলদীপ যাদব ১৪ ম্যাচ খেলে ২১টি উইকেট শিকার করেন।



আন্দ্রে রাসেল 


আন্দ্রে রাসেল কেকেআরের হয়ে যথারীতি এবারও চমৎকার বোলিং করেন।তবে তাকেও প্লেঅফে দেখা যাবে না। রাসেল এবারের আইপিএলে ১৪ ম্যাচ খেলে ১৮টি উইকেট নিয়েছেন।

ডোয়াইন ব্রাভো 


চেন্নাই সুপার কিংস এবারের আইপিএলের প্লেঅফে উঠতে পারেনি তাই চেন্নাইয়ের বোলার  ডোয়াইন ব্রাভোকে এবার আইপিএল প্লেঅফে দেখা যাবে না। উল্লেখ্য ব্রাভো এবারের আইপিএলে ১০ ম্যাচ খেলে ১৬টি উইকেট নিয়েছেন।


ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের টাইগার টেস্ট, ওয়ানডে ও টিটুয়েন্টি স্কোয়াড

                                                               
                                       ছবি: এনামুল হক বিজয়


প্রিয় ক্রিকেট ডটকমঃ আসন্ন ওয়েষ্ট ইন্ডিজ সফরের জন্য বাংলাদেশের টেষ্ট, ওয়ানডে ও টিটুয়েন্টি দল ঘোষণা করা হয়েছে। টেস্ট দলে ফিরেছেন মুস্তাফিজুর রহমান।তবে হজ পালনের জন্য মুশফিকুর রহিম এই সফরে নেই। এছাড়া ওয়ানডে ও টিটুয়েন্টি দলে ফিরেছেন এনামুল হক বিজয় ও মোঃ সাইফুদ্দিন। ডিপিএলে চমৎকার পারফরম্যান্স করায় দলে ফিরেছেন এনামুল হক বিজয়। এনামুল হক বিজয় প্রায় তিনবছর পর জাতীয় দলে ফিরলেন। উল্লেখ্য আগামী ৫জুন ২টেষ্ট,৩ ওয়ানডে ও ৩ টিটুয়েন্টি ম্যাচ খেলতে বাংলাদেশ দল ওয়েষ্ট ইন্ডিজ সফরে যাবে।


ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের টাইগার টেস্ট স্কোয়াড 


আসন্ন ওয়েষ্ট ইন্ডিজ সফরের জন্য টাইগার টেস্ট স্কোয়াড ঘোষণা করা হয়েছে। পেসার মুস্তাফিজুর রহমান টাইগার টেষ্ট স্কোয়াডে ফিরেছেন। এছাড়া মোসাদ্দেক হোসেন ওয়েষ্ট ইন্ডিজ সফরের টেস্ট দলেও রয়েছেন ।এই সফরের টাইগার টেস্ট স্কোয়াডে বিশেষজ্ঞ ব্যাটার হিসেবে রয়েছেন তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান, মুমিনুল হক,লিটন দাস, নাজমুল হোসেন শান্ত ও মাহমুদুল হাসান জয়। এছাড়া  বিশেষজ্ঞ স্পিনার হিসেবে দলে রয়েছেন সাকিব আল হাসান, তাইজুল ইসলাম ও মেহেদি হাসান মিরাজ।বিশেষজ্ঞ পেসার হিসেবে টেস্ট স্কোয়াডে রয়েছেন মুস্তাফিজুর রহমান,ইবাদত হোসেন, সৈয়দ খালেদ আহমেদ, রেজাউর রহমান রাজা ও শহিদুল ইসলাম। উইকেটরক্ষক হিসেবে রয়েছেন লিটন দাস ও নুরুল হাসান সোহান। উইন্ডিজ সফরের টাইগার টেস্ট স্কোয়াড দেখে নিন।

মুমিনুল হক (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান, মাহমুদুল হাসান জয়, নাজমুল হোসেন শান্ত,লিটন দাস, মোসাদ্দেক হোসেন, ইয়াসির আলী, তাইজুল ইসলাম, মেহেদি হাসান মিরাজ,ইবাদত হোসেন, সৈয়দ খালেদ আহমেদ, মুস্তাফিজুর রহমান, রেজাউর রহমান রাজা, শহিদুল ইসলাম, নুরুল হাসান সোহান।


ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের টাইগার ওয়ানডে স্কোয়াড 


ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের জন্য বাংলাদেশ ওয়ানডে স্কোয়াড ঘোষণা করা হয়েছে। এনামুল হক বিজয় ও মোঃ সাইফুদ্দিন ওয়ানডে দলে ফিরেছেন ।এই সফরের ওয়ানডে দলে বিশেষজ্ঞ ব্যাটার রয়েছেন ১০জন ।বিশেষজ্ঞ স্পিনার হিসেবে রয়েছেন ৩জন।বিশেষজ্ঞ পেসার হিসেবে রয়েছেন ৫জন। উইকেটরক্ষক হিসেবে রয়েছেন ২জন।উইন্ডিজ সফরের ওয়ানডে স্কোয়াড দেখে নিন।


তামিম ইকবাল (অধিনায়ক), লিটন দাস, নাজমুল হোসেন শান্ত, সাকিব আল হাসান, ইয়াসির আলী, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ,আফিফ হোসাইন, মোসাদ্দেক হোসেন,কাজী নুরুল হাসান সোহান, মেহেদি হাসান মিরাজ, তাসকিন আহমেদ, শরিফুল ইসলাম, মুস্তাফিজুর রহমান,ইবাদত হোসেন,নাসুম আহমেদ, মোঃ সাইফুদ্দিন, এনামুল হক বিজয়।


ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের টাইগার টিটুয়েন্টি স্কোয়াড 


আসন্ন ওয়েষ্ট ইন্ডিজ সফরের জন্য টাইগার টিটুয়েন্টি স্কোয়াড ঘোষণা করা হয়েছে। টিটুয়েন্টি স্কোয়াডে মোঃ সাইফুদ্দিন ও এনামুল  হক বিজয় যুক্ত হয়েছেন।তবে তামিম ইকবাল এই সফরের টিটুয়েন্টি স্কোয়াডেও নেই। এছাড়া তরুণ মুনিম শাহরিয়ার টিটুয়েন্টি স্কোয়াডে রয়েছেন।এই সফরের টিটুয়েন্টি স্কোয়াডে বিশেষজ্ঞ ব্যাটার হিসেবে রয়েছেন ৯জন।বিশেষজ্ঞ স্পিনার হিসেবে রয়েছেন ৩ জন।উইন্ডিজ সফরের টিটুয়েন্টি স্কোয়াডে বিশেষজ্ঞ পেসার হিসেবে রয়েছেন ৪জন।উইন্ডিজ সফরের টাইগার টিটুয়েন্টি স্কোয়াড দেখে নিন।

মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক),মুনিম শাহরিয়ার,লিটন দাস, সাকিব আল হাসান, এনামুল হক বিজয়,আফিফ হোসাইন, মোসাদ্দেক হোসেন, নুরুল হাসান সোহান, ইয়াসির আলী,শেখ মেহেদি হাসান, মুস্তাফিজুর রহমান, শরিফুল ইসলাম, শহিদুল ইসলাম,নাসুম আহমেদ, মোঃ সাইফুদ্দিন।


টাইগার অনুর্ধ্ব ১৯ এর কোচ হচ্ছেন স্টুয়াট ল ও ওয়াসিম জাফর

                                                            


প্রিয় ক্রিকেট ডটকমঃ বাংলাদেশ অনুর্ধ্ব ১৯ দলের কোচের দায়িত্ব নিতে যাচ্ছেন স্টুয়ার্ট ল ও ওয়াসিম জাফর(সূত্র:ঢাকাপোষ্ট)। স্টুয়ার্ট ল দুই বছরের চুক্তিতে বাংলাদেশ অনুর্ধ্ব ১৯ দলের প্রধান কোচের দায়িত্ব নেবেন। একই টিমের ব্যাটিংকোচের দায়িত্ব নিতে আসছেন ওয়াসিম জাফর। উল্লেখ্য স্টুয়ার্ট ল এর আগে একসময় বাংলাদেশের জাতীয় ক্রিকেট দলের প্রধান কোচের দায়িত্ব পালন করেন। ল কোচ থাকাকালীন সময়ে বাংলাদেশ এশিয়া কাপের ফাইনালে উঠেছিল। ওয়াসিম জাফর এর আগে বাংলাদেশ হাইপারফরম্যান্স ইউনিটের ব্যাটিং কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।



স্টুয়ার্ট লর ক্যারিয়ার 

স্টুয়ার্ট ল অষ্ট্রেলিয়ায় জন্মগ্ৰহনকারী সাবেক ক্রিকেটার। সাবেক এই অষ্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার  কোচ হিসেবেও বেশ পরিচিতি লাভ করেছেন।

ক্যারিয়ার 


স্টুয়ার্ট ল  ১টি টেস্ট,৫৪টি ওয়ানডে ও ৩৬৭টি ফাষ্টক্লাস ম্যাচ খেলেছেন যেখানে তাঁর রানসংখ্যা যথাক্রমে ৫৪,১,২৩৭ ও ২৭,০৮০। এছাড়া সাবেক এই অষ্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার বল হাতে ১২টি ওয়ানডে ও ৮৩টি ফাষ্টক্লাস উইকেট নিয়েছেন।

কোচিং ক্যারিয়ার 


স্টুয়ার্ট ল ২০০৯ সালে শ্রীলঙ্কার সহকারী কোচ হিসেবে নিয়োগ পান। সাবেক এই অষ্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার ২০১১ সালে বাংলাদেশের হেডকোচ নিযুক্ত হন।২০১৭ সালে স্টুয়াট ল ওয়েস্ট ইন্ডিজের হেডকোচ হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। এছাড়া ২০১৯ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত ল ইংল্যান্ডের কাউন্টি দল মিডলসেকসের কোচের দায়িত্ব পালন করেন।


ওয়াসিম জাফরের ক্যারিয়ার  


ওয়াসিম জাফর ভারতের সাবেক টপঅর্ডার ব্যাটার। এছাড়া কোচ হিসেবে তাঁর বেশ সমৃদ্ধ ক্যারিয়ার রয়েছে।

 ক্যারিয়ার 

ওয়াসিম জাফর ভারতের সাবেক টেস্ট ওপেনার  । তিনি ভারতের হয়ে ৩১টি টেস্ট ,২টি ওয়ানডে খেলে মোট ১,৯৫৪ রান করেন। এছাড়া এই সাবেক ওপেনার ২৬০টি ফাষ্টক্লাস ম্যাচ খেলে মোট ১৯,৪১০ রান সংগ্রহ করেন।এই ওপেনার বর্তমানে ভারতের রঞ্জি ট্রফির ইতিহাসে সর্বাধিক রানের মালিক ।


কোচিং ক্যারিয়ার 


অবসরের পর ওয়াসিম জাফর কোচিংয়ের সাথে যুক্ত হন। সাবেক এই ওপেনার একসময় বাংলাদেশ হাইপারফরম্যান্স ইউনিটের ব্যাটিং কোচ ছিলেন। এছাড়া ওয়াসিম জাফর ভারতের উওরাখন্ড ক্রিকেট টিম ও ওড়িশা ক্রিকেট টিমের হেডকোচের দায়িত্ব পালন করেন। ওয়াসিম জাফর একসময়  আইপিএল টিম কিংস ইলিভেন পাঞ্জাবের ব্যাটিং কোচের দায়িত্ব পালন করেছেন।


এবারের আইপিএলের প্লেঅফের চার টিম দেখে নিন

                                                              


প্রিয় ক্রিকেট ডটকমঃ এবারের আইপিএলের প্লেঅফের চারটিম চূড়ান্ত হয়ে গেল।লিগপর্বের খেলা শেষ হওয়ার আগেই চারটি টিম (গুজরাট টাইটানস, লক্ষ্মৌ সুপার জায়ান্টস,আরসিবি, রাজস্থান রয়্যালস) প্লেঅফ নিশ্চিত করেছে।।আর এই চারটিমের যেকোন দুটি টিম এবারের (২০২২) আইপিএলের ফাইনালে অংশ নেবে। আসুন ২০২২ আইপিএলের প্লেঅফের চারটিমের সামগ্ৰিক পারফরম্যান্সচিএ দেখে নিই।


২০২২ আইপিএলের প্লেঅফের চার টিম 


এবারের আইপিএলে শেষপর্যন্ত ব্যাটবলের লড়াই বেশ জমেছে।যদিও এবার নতুন দুই টিম গুজরাট টাইটানস ও লক্ষ্মৌ সুপার জায়ান্টস কিছুটা চমক দেখাতে সক্ষম হয়েছে। এছাড়া গত আসরের চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স এবার খুব বেশি সুবিধা করতে পারেনি।এর বাইরে ফেবারিট টিমগুলোর মধ্যে দিল্লি ক্যাপিটালস, সানরাইজার্স হায়দরাবাদ, পাঞ্জাব কিংস শেষপর্যন্ত প্লেঅফে উঠতে ব্যর্থ হয়েছে।২০২২ আইপিএলের প্লেঅফের চার টিমের সামগ্ৰিক পারফরম্যান্স ও অন্যান্য এখানে তুলে ধরছি।


গুজরাট টাইটানস 


এবারের আইপিএলের নতুন ফ্রাঞ্চাইজি গুজরাট টাইটানস নিজেদের প্রথম আসরেই চমক সৃষ্টি করেছে।পুরো আইপিএলজুড়ে চমৎকার ক্রিকেট উপহার দিতে সক্ষম হয়েছে দলটি। গুজরাট টাইটানসের সর্বশেষ পারফরম্যান্সচিএ দেখে নিন।

মোট ম্যাচ - ১৪ 

জয় - ১০

পরাজয় - ৪ 

পয়েন্ট - ২০

সেরা ব্যাটার - হ্নাদিক পান্ডিয়া (১৩ ম্যাচে ৪১৩ রান)
সেরা বোলার - রশিদ খান (১৪ ম্যাচে ১৮ উইকেট)।


রাজস্থান রয়্যালস 


রাজস্থান রয়্যালস এবার দারুণ ক্রিকেট উপহার দিতে সক্ষম হয়েছে।জস বাটলার,যুজবেন্দ্র চাহালরা এবার রাজস্থান রয়্যালসকে চমৎকার সাপোর্ট দিচ্ছেন। রাজস্থান রয়্যালসের সর্বশেষ পারফরম্যান্সচিত্র দেখে নিন।

মোট ম্যাচ - ১৪ ম্যাচ 

জয় - ৯ 

পরাজয় - ৫ 

পয়েন্ট - ১৮ 

সেরা ব্যাটার - জস বাটলার (১৪ ম্যাচে ৬২৯ রান)
সেরা বোলার - যুজবেন্দ্র চাহাল (১৪ ম্যাচে ২৬ উইকেট)।


লক্ষ্মৌ সুপার জায়ান্টস 


এবারের আইপিএলের অন্যতম বড় চমক হচ্ছে নবাগত টিম লক্ষ্মৌ সুপার জায়ান্টসের প্লেঅফে উঠতে পারা।লক্ষ্মৌ সুপার জায়ান্টস এবারের আইপিএলের শুরু থেকেই চমৎকার ক্রিকেট খেলছে।লক্ষ্মৌ সুপার জায়ান্টসের সর্বশেষ পারফরম্যান্সচিত্র দেখে নিন।

মোট ম্যাচ - ১৪ 

জয় - ৯ 

পরাজয় - ৫ 

পয়েন্ট - ১৮

সেরা ব্যাটার - কে এল রাহুল (১৪ ম্যাচে ৫৩৭ রান)
সেরা বোলার - আভিস খান (১২ ম্যাচে ১৭ উইকেট)।


আরসিবি 


আরসিবি (রয়াল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু)এবারের আইপিএলে যথারীতি চমৎকার ক্রিকেট উপহার দিতে সক্ষম হয়েছে।ডু প্লেসিস,বিরাট কোহলি,ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গাদের দারুণ পারফরম্যান্স এই  দলটিকে প্লেঅফে উঠতে সহায়তা করেছে।আরসিবির সর্বশেষ পারফরম্যান্সচিত্র দেখে নিন।

মোট ম্যাচ - ১৪ 

জয় -৮ 

পরাজয় - ৬ 

পয়েন্ট -১৬


সেরা ব্যাটার - ফাফ ডু প্লেসিস (১৪ ম্যাচে ৪৪৩ রান)
সেরা বোলার - ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা (১৪ ম্যাচে ২৪ উইকেট)।


৪৪তম বিসিএস প্রিলিমিনারি মডেল সাজেশন

                                                       





প্রিয় ক্রিকেট ডটকমঃ ৪৪তম বিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষা আর খুব বেশি দূরে নয়। এখানে ৪৪তম বিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষার জন্য একটি মডেল সাজেশন (উওরসহ) তুলে ধরা হলো।


বাংলা 


১. 'সখ্যতা' শব্দটি যে কারণে অশুদ্ধ - প্রত্যয় দ্বিত্ব দোষ।
২. শুদ্ধ বানান - অভ্যন্তরীণ,বিদ্বজ্জন, উল্লিখিত,ন্যূনাধিক।
৩. Census ও Delegate এর বাংলা অর্থ যথাক্রমে - আদমশুমারি ও প্রতিনিধি।
৪.Goods ও Hygiene এর বাংলা অর্থ যথাক্রমে - পণ্য ও স্বাস্থ্যবিদ্যা।
৫. আকাশ শব্দের সমার্থক  - গগণ,নভঃ,অন্ত্যরীক্ষ,অম্বর।
৬. বৃক্ষ শব্দের সমার্থক - পাদপ,তরু,বিটপী,শাখী,গাছ।
৭. উদ্ধত এর বিপরীত বিনীত।হরণ এর বিপরীত পূরণ।
৮. কোনগুলো পরাশ্রয়ী ধ্বনি -ং,ঃ, ঁঁ 
৯.  কোনগুলো অন্তঃস্থ ধ্বনি - য,র,ল,ব।
১০. কোনগুলো স্বরসঙ্গতির উদাহরণ - দেশি>দিশি,বিলাতি>বিলিতি।
১১. কোনটি অভিশ্রুতির উদাহরণ - বলিয়া>বলে।
১২. বাংলা মৌলিক স্বরধ্বনি কয়টি - ৭টি।
১৩. বাংলা ভাষায় অর্ধমাত্রার বর্ণ - ৮টি।
১৪. বাংলা বর্ণমালায় পর্বের সংখ্যা - ৫টি।
১৫. স্বরবর্ণে পূর্ণমাত্রার বর্ণ কয়টি - ৬টি।
১৬. কোনগুলো অর্ধতৎসম শব্দ - সুরুজ,পরাণ, জোছনা,যতন।
১৭. বাংলা ভাষায় শব্দ সাধন হয়না যে উপায়ে - লিঙ্গ পরিবর্তন দ্বারা।
১৮. কোনগুলো যোগরূঢ় শব্দ - পঙ্কজ,সরোজ,মহাযাত্রা,জলদ।
১৯. কোনগুলো ফারসি শব্দ - আইন,সালিশ,রসিদ,রাস্তা,সাজা, সরকার।
২০. কোনগুলো পর্তুগিজ শব্দ - আনারস,আলপিন,চাবি,বালতি,পেয়ারা।
২১. নিশা ও সর্বজন শব্দদুটির বিশেষণ যথাক্রমে - নৈশ ও সর্বজনীন।
২২. একটি আদর্শ ব্যাকরণের কয়টি গুণ থাকা আবশ্যক - ৩টি।
২৩. তাঁর চুল পেকেছে কিন্তু বুদ্ধি পাকেনি 'এটি কোন ধরনের বাক্য - যৌগিক বাক্য।
২৪. ডুবন্ত,উক্তি,কর্তব্য শব্দগুলোর প্রকৃতিপ্রত্যয় - ✓ডুব্+অন্ত,✓বচ্+ক্তি,✓কৃ+তব্য।
২৫. চর্যাপদের রচনাকাল - সপ্তম থেকে দ্বাদশ শতক।
২৬. মধ্যযুগের বাংলা সাহিত্যকে প্রধানত কত ধরনের - দুই ধরনের (মৌলিক ও অনুবাদমূলক)
২৭. বাংলা সাহিত্যের চৈতন্য যুগ - ১৫০১-১৬০০ খ্রিষ্টাব্দ।
২৮. কোনগুলো অন্ধকার যুগের বাংলা সাহিত্য - শূন্যপুরাণ,সেক শুভদয়া।
২৯. গীতগোবিন্দ কোন ভাষায় রচিত - ব্রজবুলি।
৩০. পদাবলী সাহিত্যের প্রথম কবি - চন্ডিদাস।
৩১. শ্রীকৃষ্ণকীর্তন কাব্য কয় খন্ডে বিভক্ত - ১৩ খন্ডে।
৩২. অন্নদামঙ্গল কাব্য কয় খন্ডে বিভক্ত - ৩খন্ডে।
৩৩. রামায়ণ কয় খন্ডে বিভক্ত - ৭ খন্ড।
৩৪. মহাভারত কয় খন্ডে বিভক্ত - ১৮ খন্ড।
৩৫. বাংলা গদ্য সাহিত্যের বিকাশে কোন প্রতিষ্ঠানটির বিশেষ অবদান রয়েছে - ফোর্ট উইলিয়াম কলেজ।
৩৬. কথোপকথন,ইতিহাসমালা কার রচনা - উইলিয়াম কেরি।
৩৭. বত্রিশ সিংহাসন কার রচনা - মৃত্যুঞ্জয় বিদ্যালঙ্কার।
৩৮. ময়মনসিংহ গীতিকার সংগ্ৰাহক - ড. দিনেশচন্দ্র সেন।
৩৯. বাংলা ভাষার প্রথম দৈনিক পত্রিকা - সংবাদ প্রভাকর।
৪০.দিকদর্শন ও সমাচার দর্পণ এর সম্পাদক ছিলেন - জেসি মার্শম্যান।
৪১. সংবাদ প্রভাকর পত্রিকার সম্পাদক ছিলেন - ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্ত।
৪২. আলমনগরের উপকথা' কার লেখা - শামসুদ্দিন আবুল কালাম।
৪৩. অবিশ্বাস্য,শবনম ' কার লেখা উপন্যাস- সৈয়দ মুজতবা আলী।
৪৪. মীর মশাররফ হোসেনের গাজী মিয়াঁর বস্তানী কোন ধরনের উপন্যাস -আত্মজীবনীমূলক।
৪৫.মুনীর চৌধুরীর উল্লেখযোগ্য নাটক - রক্তাক্ত প্রান্তর,কবর,দন্ডকারণ্য।
৪৬.'ধ্বনিবিজ্ঞান ও বাংলা ধ্বনিতত্ত্ব' ও 'বিলাতে সাড়ে সাতশ দিন' গ্ৰন্থের লেখক - মুহম্মদ আবদুল হাই।
৪৭. সওগাত পত্রিকার সম্পাদক ছিলেন - মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন।
৪৮.' আমার দেশের মাটির গন্ধে ' ও ' অশ্রু দিয়ে লেখা এ গান' - এর গীতিকার- মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান।
৪৯. উওম পুরুষ,প্রসন্ন পাষাণ উপন্যাসের লেখক - রশিদ করিম।
৫০. বেদান্ত গ্ৰন্থ,গৌড়ীয় ব্যাকরণ গ্ৰন্থদুটির লেখক - রাজা রামমোহন রায়।
৫১. পদ্মরাগ উপন্যাসের লেখক - রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেন।
৫২. পিঙ্গল আকাশ,উত্তরের খেপ উপন্যাসের লেখক - শওকত আলী।
৫৩. ক্রিতদাসের হাসি,নেকড়ে অরণ্য,জলাংগী উপন্যাসের লেখক - শওকত ওসমান।
৫৪. 'উত্তরাধিকার' কার লেখা কাব্যগ্ৰন্থ - শহীদ কাদরী।
৫৫. পেশোয়ার থেকে তাসকন্দ ,রাজবন্দীর রোজনামচা কার লেখা গ্ৰন্থ - শহীদুল্লাহ কায়সার।
৫৬. রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ঢাকায় আসেন -২বার।
৫৭. রবীন্দ্রনাথ যেসব পত্রিকার সম্পাদক ছিলেন- সাধনা,ভারতী,বঙ্গদর্শন,তত্ত্ববোধিনী।
৫৮. নজরুলের কাব্যসংকলন - সঞ্চিতা।
৫৯. শামসুর রাহমানের উলেখ্যযোগ্য কাব্যগ্ৰন্থ - রৌদ্র করোটিতে,বন্দি শিবির থেকে,বিধ্বস্ত নীলিমা।
৬০. শামসুর রাহমানের আত্মস্মৃতি -স্মৃতির শহর,কালের ধুলোয় লেখা।
৬১. সুকান্ত ভট্টাচার্যের উল্লেখযোগ্য কাব্যগ্ৰন্থ - ছাড়পত্র, হরতাল।
৬২. তন্বী,উত্তর ফাল্গুনী,অর্কেষ্ট্রা কার লেখা কাব্যগ্ৰন্থ - সুধীন্দ্রনাথ দত্ত।
৬৩. একাত্তরের ডায়েরী কার লেখা গ্ৰন্থ - সুফিয়া কামাল।
৬৪. সুফিয়া কামালের জন্ম - ১৯১১ সালের ২০জুন, শায়েস্তাবাদ , বরিশাল।
৬৫.একক সন্ধ্যায় বসন্ত কার লেখা কাব্যগ্ৰন্থ - সৈয়দ আলী আহসান।
৬৬. তরঙ্গভঙ্গ,সুড়ঙ্গ কার লেখা নাটক - সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহ।
৬৭. সৈয়দ শামসুল হকের জন্ম - ১৯৩৫ সালের ২৭ ডিসেম্বর,কুঁড়িগ্ৰামে।


ইংরেজি 


১. He is a better worker than I.Here 'better' is - Adjective.
২. What is the adjective of the word'heart'- heartfelt.
৩. _ research is needed to prove this to be true.(Huge)
৪. Plural of 'photo'- photos.
৫. Plural of'datum' -data.
৬. 'They have little money' means - They have almost no money.
৭. Example of feminine gender- Abbess, Duchess, Fisherman,Tutress, Seamstress.
৮. Muna can't type well,and her sister_.(can't either)
৯. I would tell you the answer if I _ what it was. (knew)
১০.' Take one to tasks ' means  rebuke.
১১. 'Fag end' means - the last part.
১২. ''A fish out of water' means - uneasy state.
১৩.' A red letter day' means - A memorable day.
১৪. 'To break the ice' means - to be the first to begin.
১৫. Instead of 'distribute' we can say - Give away.
১৬. The word'misogynist' means - one who hate women.
১৭. The term' lingua franka' is related to - language.
১৮. A Bangladeshi living in London is a/an - expatriate.
১৯. A short journey for pleasure - Jaunt.
২০. The Neoclassical period is - 1660-1798.
২১. Which is the Romantic period - 1798-1832.
২২. Writer of the book' The Outsider' is - Albert Camus.
২৩. Who wrote'The Adventures of Tom Sawyer' - Mark Twain.
২৪. 'A  Passage to India ' is written by - E.M.Forster.
২৫. Who wrote 'Riders to the Sea' - J.M.Synge.
২৬. Earnest Hemingway is a famous - American Novelist.
২৭. ' Our sweetest songs are those that tell of a sadest thought' - is a quotation from Shelley's - Ode to a Skylark.
২৮. Brutus is a famous character of Shakespeare in - Julius Caesar.
২৯. 'Canto' means - a part of a long poem.
৩০. 'Dirge ' means - a funeral hymn,a song expressing grief.
৩১.' Epilogue' means - A poem or speech at the end of a play.
৩২. 'Hymn' means - Song in praise of God.
৩৩. 'Rumel is as brave as a tiger.' It is  an example of - Simile.
৩৪. 'Stanza' means - a division of a poem.
৩৫. 'Malvolia' is a great clown in - Twelfth night.
৩৬. 'Man is by nature a political animal' - is stated by - Aristotle.
৩৭. 'Nineteen Eighty Four' is written by - George Orwell.
৩৮.'Arms and the man' and  'Man and Superman' is written by - G.B.Shaw.
৩৯. Who wrote ' Human Knowledge' - Bertrand Russell.
৪০. Who wrote the book 'Education and the social order' - Bertrand Russell.
৪১. 'Reading maketh a full man, conference a ready man,and writing an exact man' is stated by - Francis Bacon.
৪২. The people are the masters' is stated by - Edmund Burke.
৪৩. 'Heard melodies are sweet ,but those unheard are sweeter' is written by - John Keats.
৪৪. 'If winter comes,can Spring be far behind' is written by - P.B.Shelley.
৪৫. They think too little who talk much ' is stated by - Dryden.
৪৬. William Wordsworth is pre-eminently - a poet of nature.
৪৭. 'History of the II world war' is written by - Winston Churchill.
৪৮. Who wrote the poem 'The Hollow men' - T.S.Eliot.
৪৯. Virginia Woolf was a - 20th century Novelist.
৫০. Tooth:Gum::Eye:? - Socket.
৫১. Forest:Trees:Lawn:? - Grass.
৫২. Study of snakes - serpentology.
৫৩. Written by light - Photograph.
৫৪. Study of nerves - Neurology.
৫৫. When a person writes the story of his/her own life it is called - an autobiography.
৫৬. Who wrote the Introduction to Rabindranath Tagore's Songs offerings - W.B.Yeats.
৫৭. Ballad is - a kind of short narrative poem.
৫৮. Large scale departure of people - Exodus.
৫৯. 'To be ,or not to be , that is the question' is a famous dialogue from - Hamlet.
৬০. 'Gerontion' is a poem by - T.S.Eliot.
৬১. Funny poem of five lines is called - Limerick.
৬২. P.B.Shelley's 'Adonais' is an elegy on the death of - John Keats.
৬৩. Who wrote the novel 'The stranger ' - Albert Camus.
৬৪. Who wrote the novel ' Around the world in eighty days' - Jules Verne.
৬৫. Who wrote the novel 'Beloved' - Toni Morrison.




বাংলাদেশ বিষয় 


১. বাংলাদেশের সর্বমোট সীমারেখা - ৫১৩৮কিমি।
২.বাংলাদেশের উপকূলের দৈর্ঘ্য - ৭১৬ কিমি।
৩. বাংলাদেশের রাজনৈতিক সমুদ্রসীমা - ১২ নটিক্যাল মাইল।
৪. আয়তনের দিক থেকে বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান - ৯৩তম।
৫. বাংলাদেশের সমুদ্র উপকূলের দৈর্ঘ্য - ৪৪৫মাইল।
৬. বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী কোন জেলার সাথে ভারতের কোন সংযোগ নেই - বান্দরবান।
৭. দহগ্ৰাম ও আঙ্গরপোতা ছিটমহল কোন জেলায় অবস্থিত - লালমনিরহাট।
৮. বাংলাদেশ গার্মেন্টস ও ঔষধ শিল্পপার্ক কোথায় অবস্থিত - গজারিয়া, মুন্সীগঞ্জ।
৯. বাংলাদেশ মুদ্রণ ও প্লাষ্টিক শিল্পনগরী কোথায় অবস্থিত - সিরাজদিখান।
১০.বাংলাদেশের অষ্টম টেস্ট ভেন্যু - সিলেট।
১১. তিতাস নদী কোথায় অবস্থিত - ব্রাম্মণবাড়িয়া।
১২. মুক্তিযুদ্ধের সময় রংপুর, দিনাজপুর ছিল - ৬নং সেক্টরে।
১৩. মুক্তিযুদ্ধের সময় চট্টগ্ৰাম ছিল - ১নং সেক্টরে।
১৪. বাংলাদেশের মৎস গবেষণা কেন্দ্র কোথায় অবস্থিত- ময়মনসিংহে।
১৫.পদ্মার উৎপত্তি - হিমালয় পর্বতের গঙ্গোত্রী হিমবাহ থেকে।
১৬. বাংলাদেশের সংবিধানের তফসিল কয়টি - ৭টি।
১৭. বাংলাদেশের সংবিধান নাগরিকদের মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করার দায়িত্ব দিয়েছে - সুপ্রীম কোর্টকে।
১৮.সংসদ অধিবেশন আহ্বান, স্থগিত ও ভঙ্গ কে করেন - রাষ্ট্রপতি।
১৯. রাষ্ট্রপতির অনুপস্থিতিতে বা পদ শূন্য হলে কে রাষ্ট্রপতির মেয়াদ পালন করবেন - স্পিকার।
২০. মূলনীতিসমূহ সংবিধানের কোন অনুচ্ছেদে যুক্ত করা হয়েছে - ৮ নং অনুচ্ছেদে।
২১. 'গণতন্ত্র ও মৌলিক মানবাধিকার' সংবিধানের কোন অনুচ্ছেদে উল্লেখ করা হয়েছে- ১১নং অনুচ্ছেদে।
২২. 'আইনের আশ্রয় লাভের অধিকার' সংবিধানের কোন অনুচ্ছেদে বর্ণিত আছে- ৩১নং অনুচ্ছেদে।
২৩. 'সমাবেশের স্বাধীনতা' সংবিধানের কোন অনুচ্ছেদে বর্ণিত আছে - ৩৭ নং অনুচ্ছেদে।
২৪. 'পেশা ও বৃত্তির স্বাধীনতা' সংবিধানের কোন অনুচ্ছেদে বর্ণিত আছে- ৪০ নং অনুচ্ছেদে।
২৫.বাংলাদেশ সংবিধানের 'অর্থবিল' এর উল্লেখ্য আছে - ৮১নং অনুচ্ছেদে।
২৬. সরকারী কর্মকমিশন প্রতিষ্ঠার উল্লেখ আছে - সংবিধানের ১৩৭ নং অনুচ্ছেদে।
২৭.নারী ও পুরুষের সমান অধিকারের কথা সংবিধানের কোন অনুচ্ছেদে বর্ণিত আছে- ২৮নং অনুচ্ছেদের ২ধারা।
২৮. উপমহাদেশে পুলিশ ব্যবস্থা চালু করেন - লর্ড ক্যানিং।
২৯. উপমহাদেশের প্রথম গভর্নর ছিলেন - লর্ড ক্লাইভ।
৩০. বঙ্গভঙ্গ রদ করেন - লর্ড হার্ডিঞ্জ।
৩১. দি ব্লাড টেলিগ্ৰাম গ্ৰন্থের লেখক - গ্যারি জে ব্যাস।
৩২. বিশ্ববাজারে বাংলাদেশের ব্ল্যাক বেঙ্গল ছাগলের চামড়া কি নামে পরিচিত - কুষ্টিয়া গ্ৰেড।
৩৩. ন্যাচারাল গ্যাস ফার্টিলাইজার ফ্যাক্টরি লিমিটেড কোথায় অবস্থিত - সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জে।
৩৪. ন্যাচারাল গ্যাস ফার্টিলাইজার ফ্যাক্টরি লিমিটেডে উৎপাদিত সারের নাম - ইউরিয়া ও এএসপি।
৩৫. বাংলাদেশের দীর্ঘতম নদী - মেঘনা।
৩৬. সামুদ্রিক মাছ শিকারের জন্য বিখ্যাত দ্বীপ - সোনাদিয়া দ্বীপ।
৩৭. দক্ষিণ তালপট্টি দ্বীপ  অবস্থিত - সাতক্ষীরায়।
৩৮. নির্মল চর অবস্থিত - রাজশাহীতে।
৩৯. চর আলেকজান্ডার,চর গজারিয়া অবস্থিত - লক্ষীপুরে।
৪০. বাংলাদেশ ও মায়ানমারকে বিভক্তকারী নদী - নাফ।
৪১. বাংলাদেশের যে নদীতে সবচেয়ে বেশি চর রয়েছে - যমুনা।
৪২. সুন্দরবনে বাংলাদেশ ও ভারতকে বিভক্তকারী নদী - হাড়িয়াডাঙ্গা।
৪৩. মনু নদীর উৎপত্তি - মিজোরামের পাহাড় থেকে।
৪৪. পদ্মা ও মেঘনার মিলনস্থল - চাঁদপুর।
৪৫.গোপালগঞ্জ যে নদীর তীরে অবস্থিত - মধুমতি।
৪৬. নারায়ণগঞ্জ ও ব্রাম্মণবাড়িয়া যথাক্রমে যে নদীর তীরে অবস্থিত - শীতলক্ষ্যা ও তিতাস।
৪৭.চলনবিল বাংলাদেশের যে অঞ্চলে অবস্থিত - রাজশাহী-পাবনা।
৪৮. বাংলাদেশের সর্বপ্রাচীন জনপদ - পুন্ড্র।
৪৯. কৌটিল্য কার নাম - প্রাচীন অর্থশাস্ত্রবিদ।
৫০. অশোক যে বংশের সম্রাট ছিলেন - মৌর্য।
৫১. যে তুই প্রাচীন ভারতের স্বর্ণযুগ হিসেবে পরিচিত- গুপ্তযুগ।
৫২. শশাঙ্কের রাজধানী ছিল - কর্ণসুবর্ণ।
৫৩. মূল্য ও বাজার নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা চালু করেন - আলাউদ্দিন খলজি।
৫৪. ভারতবর্ষে মুঘল সাম্রাজ্যের প্রতিষ্ঠাতা - বাবর।
৫৫. গ্ৰ্যান্ডট্রাঙ্ক রোডের নির্মাতা - শেরশাহ।
৫৬. যে শাসনামলে সমগ্ৰ বাংলাভাষী অঞ্চল 'বাঙ্গালা' নামে অভিহিত হয় - মুসলিম শাসনামলে।
৫৭. ইউরোপ থেকে জলপথে ভারতবর্ষে আসার পথ আবিস্কৃত হয় - ১৪৯৮ খ্রিষ্টাব্দে।
৫৮. বাংলায় ইউরোপীয় বণিকদের মধ্যে বাণিজ্যের উদ্দেশ্যে প্রথম আসে - পর্তুগীজরা।
৫৯. ছয় দফা কর্মসূচি ঘোষণা করেন - বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।
৬০. বাংলাদেশের প্রথম অস্থায়ী সরকার গঠিত হয় - মেহেরপুরে।
৬১. বাংলাদেশ যে সংস্থাগুলোর সদস্য নয় - নাফটা, আশিয়ান,ওপেক,ন্যাটো।
৬২. 'তিনাম ঝর্ণা' অবস্থিত - বান্দরবান।
৬৩. আলীগড় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা - স্যার সৈয়দ আহমেদ।
৬৪. বাংলাদেশের সিলেট অঞ্চলের বিখ্যাত বাউল ও লোককবি - হাসনরাজা,শাহ আব্দুল করিম।
৬৫. পাঁচ বিবির মাজার অবস্থিত - সোনারগাঁও।
৬৬. দোয়েল চত্বর ও শিশুপার্কের স্থপতি যথাক্রমে  -আজিজুল জলিল পাশা ও শামসুল ওয়ারেস।
৬৭. গম মূলত - শীতকালীন ফসল।
৬৮. বাংলাদেশের প্রথম জিআই পণ্য - জামদানি।
৬৯. বাংলাদেশের অর্থনৈতিক খাতগুলোর মধ্যে কোন খাতগুলোতে সবচেয়ে বেশি কর্মসংস্থান হয় - কৃষি ও সেবাখাত।

 


আন্তর্জাতিক বিষয় 



১. শ্রীলঙ্কার মুদ্রার নাম - রুপি।
২. ইসলামী উন্নয়ন ব্যাংক গঠিত হয় - ১৯৭৫ সালের ,২০ অক্টোবর।
৩. ফারাক্কা বাঁধ ভারতের কোন রাজ্যে অবস্থিত - পঞ্চিমবঙ্গ।
৪. যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ - সিনেট।
৫.ইন্টারপোল প্রতিষ্ঠা ও সদরদপ্তর - ১৯২৩ সালে , সদরদপ্তর ফান্সের লিও।
৬. রো (RAW) কোন দেশের গোয়েন্দা সংস্থা - ভারত।
৭. সিআইএ কোন দেশের গোয়েন্দা সংস্থা - যুক্তরাষ্ট্র।
৮. অ্যামনেষ্টি ইন্টারন্যাশনালের সদরদপ্তর - লন্ডন।
৯. নাফটাভুক্ত দেশ কোনগুলো - মেক্সিকো,কানাডা ও যুক্তরাষ্ট্র।
১০. আফটাভুক্ত দেশ কয়টি - আশিয়ানভুক্ত ১০টি দেশ।
১১. এডিবির প্রধান কার্যালয় - ম্যানিলা।
১২. আইডিবি (IDB) এর সদরদপ্তর - জেদ্দা, সৌদিআরব।
 ১৩. ন্যাটোর বর্তমান সদস্যসংখ্যা ও সদরদপ্তর - ৩০ ও সদরদপ্তর ব্রাসেলস, বেলজিয়াম।
১৪. ন্যাটোর অফিসিয়াল ভাষা - ইংরেজি ও ফ্রেন্স।
১৫. ইউরোপের বাইরে ন্যাটোর প্রথম মিশন - ২০০৩ সালে আফগানিস্তানে।
১৬. বিমসটেকের সদস্যসংখ্যা - ৭।
১৭. বিমসটেক প্রধানত কতগুলো উন্নয়ন ক্ষেত্রে পারস্পরিক সহযোগিতা দেয় - ১৪টি।
১৮. সার্ক জ্বালানি কেন্দ্র কোথায় অবস্থিত - পাকিস্তান।
১৯. বর্তমানে শীর্ষ দুর্নীতিগ্ৰস্ত দেশ - দক্ষিণ সুদান ও সোমালিয়া।
২০. ইন্টারপার্লামেন্টারি ইউনিয়ন (IPU) এর বর্তমান প্রেসিডেন্ট - দুয়ার্তে পাচেকো।
২১. আন্তর্জাতিক ভ্যাকসিন ইনষ্টিটিউট - সিউল, দক্ষিণ কোরিয়া।
২২. সাম্প্রতিক রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ বন্ধের জন্য রাশিয়া ইউক্রেনকে কয়টি শর্ত দিয়েছে - ৪টি।
২৩. বর্তমানে স্বল্পোন্নত দেশ কয়টি - ৪৬টি।
২৪. শ্রীলঙ্কার নতুন অর্থমন্ত্রী - আলি সাবরি।
২৫. আন্তর্জাতিক ওজনস্তর রক্ষণ দিবস - ১৬ সেপ্টেম্বর।
২৬. আন্তর্জাতিক নারী দিবস - ৮ মার্চ।
২৭. কোন আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর সদরদপ্তর নেই - জি-৮,জি-৭৭,ন্যাম।
২৮. বিশ্ব ধরিত্রী দিবস - ২২ এপ্রিল।
২৯. সলোমন দ্বীপপুঞ্জ অবস্থিত - প্রশান্ত মহাসাগরে।
৩০. চীনের জিনজিয়াং প্রদেশে বসবাসকারী প্রধান মুসলিম সম্প্রদায় - উইঘুর।
৩১. সংবিধান অনুযায়ী মিয়ানমারের সংসদে কতশতাংশ আসন অনির্বাচিত সামরিক বাহিনীর সদস্যদের জন্য সংরক্ষিত থাকবে - ২৫%।
৩২. World development report কোন সংস্থার বার্ষিক প্রকাশনা - World Bank.
৩৩.সামন্তবাদ যে ইউরোপীয় দেশে প্রথম সূত্রপাত হয় - ইতালি।
৩৪. সুয়েজ খাল চালু হয় - ১৮৬৯ সালে।
৩৫.প্রেসিডেন্ট উইড্রো উইলসনের 14-points এর কত নম্বর পয়েন্টে জাতিপুঞ্জ সৃষ্টির কথা বলা হয়েছে- ১৪ নম্বর।
৩৬. জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচির(UNDP) শীর্ষ পদ - প্রশাসক।
৩৭. ইয়াল্টা কনফারেন্সের উদ্দেশ্য ছিল - জাতিসংঘ প্রতিষ্ঠা।
৩৮. ১৯৮২ সালের সমুদ্র আইন সংক্রান্ত কনভেনশন অনুযায়ী একটি উপকূলীয় রাষ্ট্রের মহীসোপানের সীমা হবে ভিত্তিরেখা হতে - ৩৫০ নটিক্যাল মাইল।
৩৯. প্রশান্ত মহাসাগরে যুক্তরাষ্ট্রের সপ্তম নৌবহরের সদরদপ্তর হচ্ছে - ইউকোসুক।
৪০. 'ডমিনো' তত্ত্ব কোন অঞ্চলের জন্য প্রযোজ্য ছিল - দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া।
৪১. ডি-৮ ভুক্ত উল্লেখযোগ্য দেশ - নাইজেরিয়া, মালয়েশিয়া, তুরস্ক।
৪২. ভারত মহাসাগরের যে দ্বীপটি আয়তনে সর্ববৃহৎ - মাদাগাস্কার।
৪৩.মুদ্রাস্ফীতি কি - অর্থের মূল্য কমে আসা।
৪৪. শ্রীলঙ্কার বর্তমান অর্থনৈতিক দুরবস্থার জন্য প্রধানত কয়টি কারণকে চিহ্নিত করা হয়- ৬টি ।
৪৫. সম্প্রতি চরম আর্থিক সংকটের কারণে  দক্ষিণ এশিয়ার যে দেশে অর্থনৈতিক জরুরী অবস্থা জারি করা হয়- শ্রীলঙ্কা।
৪৬. শ্রীলঙ্কার সরকারী নাম - গণতান্ত্রিক সমাজতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্রী শ্রীলঙ্কা।
৪৭.শ্রীলঙ্কার রাজধানী - শ্রীজয়াবর্ধনেপুরে ।
৪৮. বর্তমানে স্বল্পোন্নত দেশ - ৪৬টি।
৪৯.জো বাইডেন আমেরিকার কততম প্রেসিডেন্ট - ৪৫তম।
৫০. বর্তমানে ইউরোপীয় ইউনিয়নের বৃহত্তম বাণিজ্যিক অংশীদার - চীন।
৫১.বৈদেশিক মুদ্রা মজুদে বর্তমানে শীর্ষ দেশ - চীন।
৫২.WHO ইতিমধ্যে কতগুলো করোনা টিকার অনুমোদন দিয়েছে - ১০টি।
৫৩.বায়ুদূষণে বিশ্বে ঢাকার অবস্থান - দ্বিতীয়।
৫৪.মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতাযুদ্ধে যে দেশটি প্রত্যক্ষভাবে সাহায্য করে - ফ্রান্স।
৫৫. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পতাকায় কয়টি রেখা আছে - ১৩টি।
৫৬.ব্রিটেনের প্রশাসনিক সদরদপ্তরকে বলা হয় - হোয়াইট হল।
৫৭. ইংল্যান্ডে শিল্পবিপ্লবের ফলে উপমহাদেশের যে শিল্প ধ্বংস হয় - কুটির শিল্প।
৫৮.ফান্সের বর্তমান প্রেসিডেন্ট (পুনঃনির্বাচিত) -ইমানুয়েল ম্যাখো।
৫৯. এলডিসি সূচক কয়টি -৩টি।
৬০. ষষ্ঠ আরব দেশ হিসেবে ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করেছে - মরক্কো।
৬১. ২০২১ সালের কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়ন - আর্জেন্টিনা।
৬২. ধান উৎপাদনে বর্তমানে শীর্ষ দেশ - চীন।


গাণিতিক যুক্তি 


গাণিতিক যুক্তির জন্য নিম্নোক্ত ধরনের গণিতগুলো প্র্যাকটিস করতে পারেন। এছাড়া নিম্নোক্ত গণিতগুলো দেখতে পারেন।


১.x-y = 2 এবং XY=24 হলে xএর ধনাত্মক মানটি হবে - (6)
২.দুইটি সংখ্যার গসাগু 11 এবং লসাগু 7700।একটি সংখ্যা 275 হলে ,অপরটি - (308)।
৩.১২ এর কত শতাংশ ১৮ হবে - (১৫০)।
৪..০৩×.০০৬×.০০৭=? (.০০০০০১২৬)
৫.১+৫+৯+...+৮১=কত ? (৮৬১)।
৬.২৬১টি আম তিন ভাইয়ের মধ্যে ১/৩:১/৫:১/৯ অনুপাতে ভাগ করে দিলে প্রথম ভাই কতটি আম পাবে ? (১৩৫)
৭.(✓3×✓5)⁴ এর মান কত হবে- (225)।
৮.log2✓5⁴⁰⁰=x হলে x এর মান হবে - 4।
৯.U={1,2,3,4,5,6},A={1,2,3},B={2,4,6} হলে A'nB' হবে? {5}
১০.কোন ত্রিভুজের বাহুগুলোর অনুপাত নিচের কোনটি হলে একটি সমকোণী ত্রিভুজ অঙ্কন সম্ভব - ৩:৪:৫।
১১. f(x) =x³+kx²-6x+9; kএর মান কত হলে f(3)=0 হবে? (-2)
১২.1²+2²+3²+....+x² এর মান কত - (x(x+1)(2x+1)/6)
১৩.কোন ত্রিভুজের তিনটি বাহুকে বর্ধিত করলে উৎপন্ন বহিঃস্থ কোণ তিনটির সমষ্টি হবে - ৩৬০°।
১৪. সেট A={x€N:x²>8,x²<30} হলে xএর সঠিক মান কোনটি - (৩)
১৫. আবহাওয়া অফিসের রিপোর্ট অনুযায়ী ২০১৫ সালের জুলাই মাসের ২য় সপ্তাহে বৃষ্টি হয়েছে মোট 5দিন।ঐ সপ্তাহের বুধবার বৃষ্টি না হওয়ার সম্ভাবনা কত ? (2/7)
১৬. 10% মুনাফায় 3000টাকা এবং 8% মুনাফায় 2000টাকা বিনিয়োগ করলে মোট মূলধনের উপর গড়ে শতকরা কত হারে মুনাফা পাওয়া যাবে?(9.2%)।
১৭. একটি আয়তক্ষেত্রের কর্ণের দৈর্ঘ্য15মি এবং প্রস্থ10মি হলে আয়তক্ষেত্রের ক্ষেত্রফল হবে- (50✓5 বর্গ মিটার)।
১৮.A:B=4:5,A:C=10:9,তাহলে A:B:C =? (20:25:18)
১৯. ৫০টি বলের মধ্যে ৩৫টির গায়ে লাল দাগ,২০টির গায়ে নীল দাগ এবং ১২টির গায়ে লাল ও নীল উভয় দাগ রয়েছে।কতটি বলের মধ্যে লাল বা নীল কোন দাগ নেই? (৭টি)
২০. ৯৯+৯৮+৯৭+...+৪০ ধারাটির সমষ্টি কত ? (৪১৭০)
২১. একজন পরীক্ষার্থীকে ১২টি প্রশ্ন থেকে ৬টি প্রশ্নের উত্তর করতে হবে।প্রথম ৫টি থেকে ঠিক ৪টি প্রশ্ন বাছাই করে কত প্রকারে ৬টি প্রশ্ন উত্তর করা যাবে? (১০৫)
২২. দুই অংক বিশিষ্ট সংখ্যার অংকদ্বয়ের সমষ্টি ১০।সংখ্যাটি হতে ১৮ বিয়োগ করলে অংকদ্বয় স্থান বিনিময় করে।সংখ্যাটি কত ? (৬৪)
২৩. কোন ব্যারাকে  ৪০০০ সৈন্যের ১৯০ দিনের খাদ্য মজুদ রয়েছে।যদি ৩০ দিন পরে ৮০০ জন সৈন্য চলে যায় তবে অবশিষ্ট খাদ্যে বাকি সৈন্যদের কতদিন চলবে?(২০০দিন)
২৪.∆ABC এর BC বাহুকে D পর্যন্ত বাড়ানো হল।<A=60° এবং <B= 90° হয় তাহলে <ACD= কত ? (150°)।
২৫.সামান্তরিকের দুটি সন্নিহিত কোণের একটি ১১৫° হলে ,অপরটি -(৬৫°)।
২৬. একটি ৪৮মিটার লম্বা খুঁটি ভেঙ্গে গিয়ে সম্পূর্ণভাবে বিছিন্ন না হয়ে ভূমির সাথে ৩০° কোণ উৎপন্ন করে। খুঁটিটি কত উঁচুতে ভেঙ্গেছিল ? (১৬ মিটার) ।





সাধারণ বিজ্ঞান 


১. শামুক, ঝিনুক কোন পর্বের প্রাণি - মলাস্কা।
২. আম ও কাঁঠালে থাকে - ভিটামিন এ।
৩. প্যাপিলোমা ভাইরাস কোন রোগের জন্য দায়ী - ক্যান্সার।
৪. রিকেটস রোগ হয় কোন ভিটামিনের অভাবে - ভিটামিন ডি।
৫. রক্তের ph মাত্রা গড়ে - ৭.২-৭.৪।
৬. কোষের শক্তিঘর বা পাওয়ার হাউস কোনটি - মাইটোকন্ড্রিয়া।
৭. চুনাপাথর পরিবর্তিত হয়ে যে শিলায় পরিণত হয় - মার্বেল।
৮. তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেলে বায়ুর জলীয় বাষ্প ধারণ ক্ষমতা - বৃদ্ধি পায়।
৯. ডায়রিয়া হয় - রোটা ভাইরাসের অভাবে।
১০. রক্তে রক্তরসের পরিমাণ - ৫৫%।
১১. একজন মানুষের দৈনিক কতগ্লাস পানি পান করা উচিত - ৭-৮ গ্লাস।
১২. অ্যাক্সন ও ডেনড্রাইড কিসের অংশ - নিউরন।
১৩. জটিল টিস্যু কতপ্রকার - ২প্রকার।
১৪. কাজের ভিওিতে কোষ - ২প্রকার।
১৫. ট্রানজিষ্টরে সেমিকন্ডাক্টর হিসেবে ব্যবহৃত হয় - জার্মেনিয়াম।
১৬. দুধের ঘনত্ব নির্ণয় করা হয় যে যন্ত্রের সাহায্যে - ল্যাক্টোমিটার।
১৭. গ্যাসের চাপ নির্ণায়ক যন্ত্র - ম্যানোমিটার।
১৮.SI পদ্ধতিতে দৈর্ঘ্য ও সময়ের একক - মিটার ও সেকেন্ড।
১৯. চলন্ত বাস হঠাৎ ব্রেক করলে যাত্রীরা সামনের দিকে ঝুঁকেয় পড়েন - গতি জড়তার কারণে।
১৯.কোনগুলো ভেক্টররাশি - ওজন, বেগ, ত্বরণ।
২০.পৃথিবীর কেন্দ্র কোন বস্তুর ওজন - শূন্য।
২১.তাপ সঞ্চালনের দ্রুততম প্রক্রিয়া - বিকিরণ।
২২.যে তাপমাত্রায় পানির ঘনত্ব সবচেয়ে বেশি - ৪°সে।
২৩.রেফ্রিজারেটরে ব্যবহ্নত হয় - অ্যামোনিয়া ও ফ্রেয়ন।
২৪.   হাইড্রোইলেকট্রিসিটি তৈরিতে দরকার হয় - পানি।
২৫.একজন সুস্থ মানুষের শরীরের তাপমাত্রা সাধারণত ৯৮.৪°ফারেনহাইট।
২৬.রঙিন টেলিভিশন থেকে বের হয় ক্ষতিকর- গামা রশ্মি।
২৭. রূপচর্চা, স্টিমারের সার্চ লাইট, চিকিৎসক কর্তৃক নাক, কান, গলা পর্যবেক্ষণ ইত্যাদিতে ব্যবহ্নত হয় - অবতল দর্পণ।
২৮.স্পষ্ট দর্শনের নিকটতম দূরত্ব - ২৫ সেমি।
৩০. বার্ধক্যজনিত দৃষ্টিহীনতায় দেয়া হয় - বাইফোকাল লেন্স।
৩১.বর্ণালীর প্রান্তীয় বর্ণ - বেগুনি ও লাল।
৩২.রঙিন টেলিভিশনের ক্যামেরায় যে তিন মৌলিক রং ব্যবহ্নত হয় - লাল, আসমানী ও সবুজ।
৩৩. শহরের রাস্তায় ট্রাফিক লাইট যে ক্রম অনুসারে জ্বলে - লাল-হলুদ-সবুজ-হলুদ-লাল।
৩৪. কোনগুলো বিদ্যুৎ অপরিবাহী পদার্থ - কাচ,প্লাষ্টিক,চীনামাটি,কাগজ, রাবার মোম।
৩৫. থ্রিপিন প্লাগে অপেক্ষাকৃত লম্বা ও মোটা পিনটির নাম - আর্থপিন।
৩৬.নিরাপত্তা ফিউজ বা ফিউজ তারে ব্যবহ্নত হয় - ২৫%টিন ও ৭৫%সিসা।
৩৭. বাসাবাড়িতে সরবরাহকৃত বিদ্যুতের ফ্রিকোয়েন্সি হলো - ৫০ হার্জ।
৩৮. বৈদ্যুতিক জেনারেটর - যান্ত্রিক শক্তিকে বৈদ্যুতিক শক্তিতে রূপান্তরিত করে।
৩৯. লাউডস্পিকারে - তড়িৎশক্তি শব্দশক্তিতে রুপান্তরিত হয়।
৪০. টেলিভিশন ও এক্সরের আবিষ্কারক যথাক্রমে - জন এল বেয়ার্ড ও রন্টজেন।
৪১. ট্রানজিষ্টর কয় প্রকার - ২ প্রকার।
৪২. আসল ও নকল গহনা শনাক্ত করতে ব্যবহ্নত হয় - এক্সরে রশ্মি।
৪৩. শুষ্ককোষ আবিস্কারক - জর্জ লেকল্যান্স।
৪৪. সবচেয়ে ভারি পদার্থ ও সবচেয়ে শক্ত পদার্থ যথাক্রমে - পারদ ও হীরা।
৪৫. পরমাণুর স্থায়ী মূলকণিকা - ৩টি(ইলেকট্রন,প্রোটন ও নিউট্রন)।
৪৬. আইসোটপে - প্রোটন সংখ্যা সমান কিন্তু ভরসংখ্যা সমান নয়।
৪৭. ইউরেনিয়ামের পারমাণবিক সংখ্যা - ৯২।
৪৮. যে ধাতু পানি অপেক্ষা হালকা - পটাসিয়াম।
৪৯. তামার সাথে কোনটি মেশালে পিতল হয় - দস্তা।
৫০. অগ্নিনির্বাপক সিলিন্ডারে থাকে - তরল কার্বন ডাই অক্সাইড।
৫১. কোনটি কাঁদানে গ্যাস হিসেবে ব্যবহ্নত হয় - ক্লোরোপিক্রিন।
৫২. যক্ষার টীকা এবং কলেরা জীবাণু আবিষ্কারক যথাক্রমে - ক্যালসাট ও গুয়েচিন এবং রবার্ট কচ।
৫৩.এনাটমি ও উদ্ভিদবিজ্ঞানের জনক যথাক্রমে - ভেসালিয়াস ও থিওফ্রাষ্টাস।
৫৪. জীবের রাসায়নিক গঠন উপাদান হচ্ছে - ডিএনএ।
৫৫. পানিবাহিত রোগ কোনগুলো - প্যারাটাইফয়েড, ডিপথেরিয়া,কলেরা।



কম্পিউটার ও তথ্যপ্রযুক্তি 

১. ৩জি প্রথম চালু হয় - ২০০১ সালে।
২. ৪জি এর প্রকৃত ব্যান্ডউইথ - ১০ এমবিপিএস।
৩. ন্যানো সেকেন্ড হল - এক সেকেন্ডের একশত কোটি ভাগের এক ভাগ।
৪.কম্পিউটারের জনক - চার্লস ব্যাবেজ।
৫. প্রথম ডিজিটাল কম্পিউটার আবিষ্কার করেন - হাওয়ার্ড আইকিন।
৬. বিশ্বের সর্বপ্রথম ইলেকট্রনিক কম্পিউটার - ENIAC.
৭. ট্রানজিষ্টর আবিস্কৃত হয় - ১৯৪৮ সালে।
৮. কম্পিউটারের মূল মেমোরি তৈরি হয় - সিলিকন দিয়ে।
৯. আধুনিক কম্পিউটারের দ্রুত অগ্ৰগতির মূলে রয়েছে - ইন্টিগ্ৰেটেড সার্কিট।
১০. আইসি বা ইন্টিগ্ৰেটেড সার্কিট উদ্ভাবন করেন - জে এস কেলবি।
১১. আইসি দিয়ে তৈরি প্রথম ডিজিটাল কম্পিউটার - আইবিএম সিষ্টেম 360।
১২. মাইক্রোসফটের বর্তমান সিইও - সত্য নাদেলা।
১৩. সম্প্রতি কোন ধনকুবের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম'টুইটার' কিনে নেন - ইলন মাস্ক।
১৪. ইলন মাস্ক যে পরিমাণ অর্থ দিয়ে টুইটার কেনেন - ৪৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।
১৫. ইন্টেল প্রতিষ্ঠিত হয় - ১৮ জুলাই,১৯৬৮ খ্রিষ্টাব্দে।
১৬. প্রথম ইলেকট্রনিক কম্পিউটার - মার্ক-১।
১৭. মাইক্রোপ্রসেসর ভিত্তিক প্রথম কম্পিউটার - আলটেয়ার ৮৮০।
১৮. এনালগ ও ডিজিটাল কম্পিউটারের সমন্বয়ে গঠিত হয় - হাইব্রিড কম্পিউটার।
১৯. ল্যাপটপের প্রধান সুবিধা - এটি ডেক্সটপ থেকে অনেক বেশি বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী।সহজে বহনযোগ্য।
২০. বাংলাদেশে তৈরি ল্যাপটপ - দোয়েল।
২১. কোন প্রজন্মের কম্পিউটারে প্রথম আইসি ব্যবহার করা হয় - তৃতীয় প্রজন্ম।
২২. কোন প্রজন্মের কম্পিউটারে প্রথম ট্রানজিষ্টর ব্যবহ্নত হয় - দ্বিতীয় প্রজন্ম।
২৩.কম্পিউটার সিষ্টেমের প্রধান চারটি কাজ - ইনপুট, প্রসেসিং, আউটপুট ও স্টোরেজ।
২৪. যে যন্ত্রাংশটি কম্পিউটার বানানোর জন্য অত্যাবশ্যক - রেম।
২৫. যে যন্ত্রাংশটি কম্পিউটারের মস্তিষ্ক রূপে কাজ করে - প্রসেসর।
২৬. ইন্টেল পেন্টিয়াম কিসের উদাহরণ - প্রসেসর।
২৭. একটি পার্সোনাল কম্পিউটারের সিপিইউ-এর স্পিড - 100 kIps।
২৮. কোনটি ইনপুট ডিভাইস - কিবোর্ড,অসিআর।
২৯. অভ্র কিবোর্ডের জনক - মেহেদি হাসান খান।
৩০. অধিকাংশ কম্পিউটারে F1 কোন নির্দেশনা দেয় - Help।
৩১. কম্পিউটারের কোন যন্ত্রাংশের উপর মনিটরে দৃশ্যমান ছবির গুণগত মান নির্ভর করে - ভিজিএ কার্ড।
৩২. কোন ধরনের প্রিন্টার সবচেয়ে দ্রুতগতিতে উন্নতমানের প্রিন্ট দিতে পারে - লেজার প্রিন্টার।
৩৩. উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমে ওয়ার্ড ডকুমেন্ট প্রিন্ট দিতে ব্যবহ্নত শর্টকাট কী- Ctrl+p.
৩৪. কোনটি একই সাথে ইনপুট ও আউটপুট ডিভাইস - টাসস্ত্রিন।
৩৫. কম্পিউটারে কোনটি বৃহত্তম ডেটা নির্দেশক একক - টেরাবাইট।
৩৬. জনপ্রিয় ওয়েব ব্রাউজিং সফটওয়্যার - গুগল ক্রোম,মজিলা ফায়ারফক্স,অপেরা মিনি, ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার।
৩৭. টিকটক আবিষ্কার ও আবিষ্কারক - ২০১৬ সালে, ঝাং ইয়েমিং।
৩৮. হোয়াটসঅ্যাপ আবিষ্কার ও আবিষ্কারক - ২০০৯ সালে,জ্যান কউম ও ব্রায়ান এক্টন।
৩৯. ডোমেইন সার্ভারের কাজ হচ্ছে - ডোমেইন নেম কে আইপি এড্রেসে পরিবর্তন করা।
৪০. কোনটি ওপেনসোর্স DBMS - MYSQL.
৪১. Push এবং pop  কোনটির সাথে সম্পর্কিত - Stack.
৪২. আইওএস মোবাইল অপারেটিং সিস্টেমটি কোন প্রতিষ্ঠান বাজারজাত করে - অ্যাপল।
৪৩. কিবোর্ড ও সিপিইউ এর মধ্যে কোন পদ্ধতিতে ডাটা ট্রান্সমিশন হয় - Simplex.



ভূগোল ও অন্যান্য 


১. কোন তারিখে সূর্য পৃথিবীর  সবচেয়ে কাছে অবস্থান করে - ১ জানুয়ারি।
২.দিনরাত্রি হ্রাসবৃদ্ধি ও ঋতু পরিবর্তন হয় - বার্ষিক গতির ফলে।
৩. ঘূর্ণিঝড়ের স্থানীয় সতর্ক সংকেত - ৩নং সংকেত।
৪. হিরণ পয়েন্ট:সুন্দরবন :: এলিফ্যান্ট পয়েন্ট: ? - কক্সবাজার।
৫. বাংলাদেশের গড় বৃষ্টিপাতের পরিমাণ - ২০০০ মি.মি.
৬. বাংলাদেশের কোন জেলায় সবচেয়ে বেশি বৃষ্টিপাত হয় - সিলেট জেলা।
৭. বাংলাদেশে শীতকালে কম বৃষ্টিপাত হয় - উওর-পূর্ব শুষ্ক মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে।
৮. বাংলাদেশে বার্ষিক গড় তাপমাত্রা - ২৬° সে:
৯. চট্টগ্ৰাম ও কক্সবাজারের পুরাতন নাম যথাক্রমে - ইসলামাবাদ ও পালংকি।
১০. বাংলাদেশের পর্যটন রাজধানী হিসেবে খ্যাত  - কক্সবাজার।
১১. কোন উপজাতিগুলো হিন্দু ধর্মাবলম্বী - গারো,হাজং, ত্রিপুরা প্রভৃতি।
১২. কোন উপজাতি ইসলাম ধর্মাবলম্বী - পাঙন।
১৩. বাংলাদেশে সর্বোচ্চ বিনিয়োগকারী দেশ - যুক্তরাষ্ট্র।
১৪. মেট্রোরেল প্রকল্প পরিচালক কোম্পানীর নাম - ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানী।
১৫. মেট্রোরেল প্রকল্প বাস্তবায়নে ব্যয় হবে - ২২হাজার কোটি টাকা।
১৬. মেট্রোরেল প্রকল্পে কোন সংস্থা কত শতাংশ ঋণ দিচ্ছে - জাইকা,৭৫%।
১৭. মেট্রোরেলের দৈর্ঘ্য - ২০.১ কিমি।
১৮. গ্ৰিনপিসের সদরদপ্তর - আমষ্টারডাম, নেদারল্যান্ডস।
১৯. ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার কি- বর্ণবাদ বিরোধী আন্দোলন।
২০. কোন দেশটি সর্বাধিক রাষ্ট্রের সাথে সীমানাযুক্ত - চীন।
২১.মারিওপুল শহরটি অবস্থিত - ইউক্রেনে।
২২. মাদার তেরেসা জন্মগ্ৰহন করেন - যুগোস্লাভিয়ায়।
২৩. .গ্ৰিন ক্লাইমেট ফান্ডের সদরদপ্তর - ইনচিয়ন, দক্ষিণ কোরিয়া।
২৪. গাড়ীর সাথে পথের যেমন সম্বন্ধ থার্মোমিটারের সাথে কোনটির সেই সম্বন্ধ - উষ্ণতা।
২৫. কোন বস্তুর উপর পৃথিবীর আকর্ষণ - অভিকর্ষ।
২৬. ২৬তম বিশ্ব জলবায়ু সম্মেলন হবে - গ্লাসগো,স্কটল্যান্ড।
২৭. এমসিসির প্রথম নারী সভাপতি - ক্লেয়ার কনোর।
২৮. ২০২১ সালে শান্তিতে নোবেল পান - মারিয়া রেসা ও দিমিত্রি মোরাতেভ।
২৯. ম্যানগ্ৰোভ কী - উপকূলীয় বন।
৩০. জলবায়ু পরিবর্তনের হুমকির ব্যাপকতা তুলে ধরার জন্য কোন দেশ সমুদ্রের গভীরে মন্ত্রীসভার বৈঠক করেছে - মালদ্বীপ।
৩১. মংডু কোন দুটি দেশের সীমান্ত এলাকা - বাংলাদেশ-মায়ানমার।
৩১. কার্টাগেনা প্রটোকল হচ্ছে - জাতিসংঘ জৈব নিরাপত্তা বিষয়ক চুক্তি।
৩২. মন্ট্রিল প্রটোকল কতবার সংশোধন করা হয়েছে - ৪ বার।
৩৩. পূর্ব সতর্কতা ছাড়াই যে দুর্যোগ সংগঠিত হয় - ভূমিকম্প।
৩৪. বাংলাদেশের কৃষি কোন প্রকার - ধান-প্রধান নিবিড় স্বয়ংভোগী।
৩৫. মানুষের যে ক্রিয়া নীতিবিদ্যার আলোচ্য বিষয় - ঐচ্ছিক ক্রিয়া।
৩৬. এমডিজি অর্জনে সুশাসনের কোন দিকটির উপর গুরুত্ব দেয়া হয়েছে - অর্থনৈতিক দিক।
৩৭. সুশাসনের পূর্বশর্ত হচ্ছে - মত প্রকাশের স্বাধীনতা।
৩৮. জোহানেসবার্গ প্ল্যান অব ইমপ্লিমেন্টেশন সুশাসনের সাথে কোন বিষয়টিকে অধিকতর গুরুত্ব দেয় - টেকসই উন্নয়ন।
৩৯. সুশাসন শব্দটি সর্বপ্রথম কোন সংস্থা সুস্পষ্টভাবে ব্যাখ্যা করে - বিশ্বব্যাংক।
৪০. নিরপেক্ষ ও শক্তিশালী গণমাধ্যমের অনুপস্থিতি কিসের অন্তরায় - সুশাসনের।
৪১. যে বনাঞ্চল প্রতিনিয়ত লবণাক্ত পানি দ্বারা প্লাবিত হয় - ম্যানগ্ৰোভ বন।
৪২. যে উপজেলা সবচেয়ে বেশি নদীভাঙ্গন প্রবণ - নড়িয়া।
৪৩.ট্রপিক্যাল সাইক্লোন সৃষ্টির জন্য সাগরপৃষ্ঠের ন্যূনতম তাপমাত্রা কত হওয়া প্রয়োজন- ২৬.৫০ সে।
৪৪. কর্তব্যের জন্য কর্তব্য ' ধারণাটির প্রবর্তক - ইমানুয়েল কান্ট।
৪৫. On liberty গ্ৰন্থের লেখক - জন স্টুয়ার্ট মিল।
৪১. নৈতিক মূল্যবোধের উৎস - ধর্ম।
৪২. রিপাবলিক কার লেখা গ্ৰন্থ - প্লেটো।
৪৩. ব্যক্তিগত মূল্যবোধ লালন করে - স্বাধীনতার মূল্যবোধকে।
৪৪. সুশাসনের পূর্বশর্ত হচ্ছে - অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়ন।
৪৫. একজন যোগ্য প্রশাসক ও ব্যবস্থাপকের অত্যাবশ্যকীয় মৌলিক গুণাবলীর মধ্যে শ্রেষ্ঠ গুণ হচ্ছে - নৈতিকতা।
৪৬. আমাদের চিরন্তন মূল্যবোধ হচ্ছে - সত্য ও ন্যায়।
৪৭. 'সুশাসন বলতে রাষ্ট্রের সঙ্গে সুশীল সমাজের, সরকারের সঙ্গে শাসিত জনগণের, শাসকের সঙ্গে শাসিতের সম্পর্ক বোঝায়' উক্তিটি কার - ম্যাককরনী।
৪৮. জনগণ,রাষ্ট্র ও প্রশাসনের সাথে ঘনিষ্ঠ প্রত্যয় হলো - সুশাসন।
৪৯. বাংলাদেশের যে জেলায় নিচু ভূমির পরিমাণ সবচেয়ে বেশি - কিশোরগঞ্জ।
৫০. বাংলাদেশের যে অঞ্চল বেশি খরাপ্রবণ - উওর-পঞ্চিম অঞ্চল।
৫১. কোন পর্যায়ে দুর্যোগের ক্ষতি মূল্যায়ন করা হয় - পুনর্বাসন পর্যায়ে।
৫২. বাংলাদেশের যে অঞ্চলে আকস্মিক বন্যা হয় - উত্তর-পূর্বাঞ্চল।
৫৩. যে দুর্যোগ 'hydro-meteorological'দুর্যোগ হিসেবে পরিচিত - বন্যা।
৫৪. এলমন্ড এন্ড পাওয়েল চাপসৃষ্টি কারী গোষ্ঠীকে ভাগ করেছেন - ৩ ভাগে।
৫৫. সমবৃষ্টিপাত সম্পন্ন স্থানসমূহের যোগকারী রেখাকে বলে - আইসোহাইট।
৫৬. বাংলাদেশে কোন সালের বন্যায় সবচেয়ে বেশি এলাকা প্লাবিত হয় - ১৯৯৮ সালের।



সাম্প্রতিক চাকরির খবর

                                                          



প্রিয় ক্রিকেট ডটকমঃ দেশের চাকরির বাজারে বেশকিছু নতুন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে। এখানে সাম্প্রতিক চাকরির বাজারের কিছু নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরছি।


বাংলাদেশ ব্যাংকে নিয়োগ 


বাংলাদেশ ব্যাংকে' সহকারী পরিচালক' পদে জনবল নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।

পদ : সহকারী পরিচালক 


পদসংখ্যা : ২২৫ 


যোগ্যতা : স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্মাতকোত্তর ডিগ্ৰি অথবা ৪ বছর মেয়াদি স্মাতক ডিগ্রি।



বেতনস্কেল : নবম গ্ৰেড।


বয়স : ১৮ থেকে ৩০ বছর । তবে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও শারীরিক প্রতিবন্ধীদের ক্ষেএে বয়স সর্বোচ্চ ৩২ বছর।


আবেদন প্রক্রিয়া: অনলাইন (ভিজিট erecruitment.bb.org.bd)।


আবেদন ফি : আবেদন ফি প্রযোজ্য নয়।


আবেদনের শেষ তারিখ : ১৫/০৬/২০২২ ।


সূত্র : প্রথমআলো অনলাইন।



গাক(গ্ৰাম উন্নয়ন কেন্দ্র) এ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি 


বাংলাদেশের সুপরিচিত বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা গাক(গ্ৰাম উন্নয়ন কেন্দ্র) -এ ম্যানেজমেন্ট ট্রেইনি পদে জনবল নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।

পদ: ম্যানেজমেন্ট ট্রেইনি


পদসংখ্যা: অনির্দিষ্ট


যোগ্যতা : যেকোন বিষয়ে স্মাতকোওর ডিগ্ৰি।


বয়স : উল্লেখ করা হয়নি।


চাকরির ধরন : ফুলটাইম


বেতন : ৩৫হাজার টাকা।


কর্মস্থল : বগুড়া ও গাক-এর আঞ্চলিক কার্যালয়ে।



আবেদন প্রক্রিয়া: অনলাইন (ভিজিট www.bdjobs.com)


আবেদনের শেষ তারিখ : ৩১/০৫/২০২২।


সূত্র : বিডিজবস ডটকম 



বাংলাদেশের শীর্ষ টেস্ট ব্যাটার এখন মুশফিক

                                                               
                                             ছবি: মুশফিকুর রহিম



প্রিয় ক্রিকেট ডটকমঃ বাংলাদেশ ২০০০ সালে টেস্ট আঙিনায় প্রবেশের পর ক্রিকেটের এই অভিজাত ফরম্যাটে দলীয় সাফল্য অর্জনে পিছিয়ে থাকলেও ব্যক্তিগত পারফরম্যান্স বিবেচনায় বেশ ভালো অবস্থানে রয়েছে।  মুশফিকুর রহিম, তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান, হাবিবুল বাশার সুমন,মুমিনুল হক,মোঃ আশরাফুল,লিটন দাস, ইমরুল কায়েস,নাজমুল হোসেন শান্ত, মাহমুদুল হাসান জয়রা টেস্ট ক্রিকেটে  বাংলাদেশের সেরা আবিষ্কার।এরই ধারাবাহিকতায় মুশফিক শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে চলমান চট্টগ্ৰাম টেষ্টে বাংলাদেশের প্রথম ব্যাটার হিসেবে পাঁচ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করেছেন। আসুন টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের সর্বাধিক রানকারী শীর্ষ ব্যাটারদের পরিসংখ্যান দেখে নিই।


টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রানকারী


টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের সফল ব্যাটারদের মধ্যে মুশফিকুর রহিম, তামিম ইকবাল,সাকিব আল হাসান, মুমিনুল হকের নাম বিশেষভাবে উচ্চারিত হয়। এবং এদের প্রত্যেককে বাংলাদেশের টেস্ট ক্রিকেটের জীবন্ত লিজেন্ড বলা যায়।টেষ্টে বাংলাদেশের সর্বাধিক রানকারী ব্যাটারদের পরিসংখ্যান এখানে তুলে ধরা হলো।



 মুশফিকুর রহিম 


টেকনিক, টাইমিং ও সবধরনের শট খেলার সামর্থ্য বিবেচনায় মুশফিকুর রহিমকে বাংলাদেশের সেরা টেস্ট ব্যাটার হিসেবে স্বীকৃতি দেয়া হয়। মুশফিকুর রহিম টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের প্রথম ৫ হাজার রানকারী ব্যাটার। এছাড়া এই মুহূর্তে টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রানের মালিক মুশফিকুর রহিম। উল্লেখ্য মুশফিকুর রহিম ইতিমধ্যে ৮১টি টেস্ট খেলে ৫০৩৭ রান করেছেন।


তামিম ইকবাল 


দীর্ঘদিন ধরে বাংলাদেশের টেস্ট ওপেনিংয়ের এক আস্থার নাম তামিম ইকবাল।বলা হয় টেষ্টে একজন ধারাবাহিক ওপেনার যেকোন টিমের জন্য এক বড় পাওয়া। বাংলাদেশের টেস্ট ক্রিকেটের জন্য তামিম ইকবাল এমনই এক সফল আবিস্কার। উল্লেখ্য তামিম ইকবাল টেষ্টে বাংলাদেশের  শীর্ষ রানকারী ব্যাটারদের মধ্যেও অন্যতম। তামিম ইকবাল ইতিমধ্যে টেস্ট ক্রিকেটে ৬৬ ম্যাচ খেলে ৪৯৮১ রান করেছেন।



সাকিব আল হাসান 


সাবেক বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের শীর্ষ ব্যাটারদের তালিকায় রয়েছেন। সাকিব দীর্ঘদিন ধরে টেষ্টে বাংলাদেশের টপঅর্ডারের এক আস্থার প্রতীক হয়ে আছেন। সাকিব আল হাসান ইতিমধ্যে ৬০টি টেস্ট ম্যাচ খেলে ৪০৫৫ রান করেছেন।


মুমিনুল হক 


বাংলাদেশের বর্তমান টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুল হক দীর্ঘদিন ধরে  বাংলাদেশের টেষ্টের মিডলঅর্ডারে সফলতার পরিচয় দিয়ে যাচ্ছেন।এই ব্যাটার টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের শীর্ষ (রান সংগ্রাহক) ব্যাটারদের তালিকায় রয়েছেন। উল্লেখ্য মুমিনুল হক ইতিমধ্যে বাংলাদেশের হয়ে ৫২টি টেস্ট খেলেছেন যেখানে তাঁর মোট রানসংখ্যা ৩৫১৬।


হাবিবুল বাশার সুমন 


বাংলাদেশের টেস্ট ক্রিকেট ইতিহাসের সেরা ব্যাটারদের তালিকায় হাবিবুল বাশার সুমনের নামটিও উচ্চারিত হয়। সাবেক এই মিডলঅর্ডার ব্যাটার দীর্ঘদিন যাবত বাংলাদেশের টেস্টের মিডলঅর্ডারে আস্থার প্রতীক হয়ে ছিলেন।সুমন ৫০টি টেস্ট খেলে মোট ৩০২৬ রান সংগ্রহ করেন।


মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ 


টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসরের আগে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ বাংলাদেশের টেষ্টের মিডলঅর্ডারে সফলতার স্বাক্ষর রেখেছেন। মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ বাংলাদেশের হয়ে ৫০টি টেস্ট খেলে মোট ২৯১৪ রান সংগ্রহ করেন।


মোঃ আশরাফুল 


একসময় বাংলাদেশের ক্রিকেটের সবচেয়ে জনপ্রিয় ও টপক্লাস টেকনিকের ব্যাটার ছিলেন মোঃ আশরাফুল।তিনিও টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের হয়ে দারুণ কিছু ইনিংস খেলেছেন। মোঃ আশরাফুল ৬১টি টেস্ট খেলে মোট ২৭৩৭ রান করেন।


লিটন দাস 


বাংলাদেশের বর্তমান টেস্ট দলের নির্ভরযোগ্য মিডলঅর্ডার ব্যাটার লিটন দাস।কুল ও ক্যালকুলেটেড ব্যাটিংয়ের জন্য লিটন দাস ইতিমধ্যে বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছেন। উল্লেখ্য লিটন দাস ইতিমধ্যে ৩২টি টেস্ট ম্যাচ খেলে ১৮১৮ রান সংগ্রহ করেছেন।