WHAT'S NEW?
Loading...

পাকিস্তান-অষ্ট্রেলিয়া সেমির আগে

                                                               



প্রিয় ক্রিকেট ডটকমঃ আজ ২০২১ ম্যানস টিটুয়েন্টি বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনাল মাঠে গড়াবে। দ্বিতীয় সেমিফাইনালে পাকিস্তান অষ্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হবে। এবারের টিটুয়েন্টি বিশ্বকাপে এই দুদলই ভালো ক্রিকেট খেলছে।তবে পাকিস্তানকে শুরু থেকে এগ্ৰেসিভ মনে হচ্ছে এদিকে অষ্ট্রেলিয়াও বেশ কৌশলী ক্রিকেট খেলছে।আর এসব কিছু বিবেচনায় বলা যায় আজকের সেমিফাইনালে দুদলের মধ্যে একটি প্রাণবন্ত ম্যাচই হতে চলেছে।আসুন আজকের সেমিফাইনালের আগে দুদলের সম্ভাবনাগুলো দেখে নিই।



ব্যাটিং সামর্থ্য 


এই মুহূর্তে পাকিস্তানের ব্যাটিং লাইনআপ টিটুয়েন্টি ক্রিকেটের অন্যতম সেরা । এবারের টিটুয়েন্টি বিশ্বকাপেও পাকিস্তানের টপঅর্ডার দারুণ ব্যাটিং করছে।বাবর আজম, মোঃ রিজওয়ান, শোয়েব মালিকের মত দারুণ কিছু টিটুয়েন্টি ব্যাটার পাকিস্তানের একাদশে রয়েছেন।ফ্ল্যাট উইকেটে পাকিস্তানের ব্যাটাররা এমনিতেই ভালো খেলেন। এদিকে অষ্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং বিশ্বকাপের শুরুতে কিছুটা এলোমেলো মনে হলেও পরবর্তীতে কিন্তু বেশ সাবলিল দেখা গেছে।অষ্ট্রেলিয়ার ফিন্স,ওয়ার্নার,মার্শ বেশ ভালো ব্যাটিং করছেন।তবে ফ্ল্যাট উইকেট হলে পাকিস্তান পাওয়ারপ্লে ব্যাটিংয়ে কিছুটা এগিয়ে থাকবে।তবে দুদলেই  ভালো ফিনিশারের অভাব রয়েছে।



বোলিং সামর্থ্য


এবারের টিটুয়েন্টি বিশ্বকাপের উইকেটে পাকিস্তানের বোলাররা শুরু থেকেই ভালো বোলিং করছেন।তবে সুপার টুয়েলভের শীর্ষ পাঁচ বোলারের তালিকায় পাকিস্তানের কোন বোলার নেই যদিও অষ্ট্রেলিয়ার এডাম জাম্পার নাম রয়েছে। সেমিফাইনালে পাকিস্তানের পেস অ্যাটাকে শাহিন শাহ আফ্রিদির মত তারকা বোলার রয়েছেন। এদিকে অষ্ট্রেলিয়ার পেস অ্যাটাকে  মিশেল স্ট্রার্কের মত অভিজ্ঞ বোলার রয়েছেন।তবে দুদলের স্পিন অ্যাটাকই ব্যালান্সড ও শক্তিশালী ।



উইকেট বিবেচনা


একটু অবাক করা হলেও সত্য যে আজকের পাকিস্তান-অষ্ট্রেলিয়া টিটুয়েন্টি বিশ্বকাপ সেমির ম্যাচে উইকেট একটি বড় প্রভাবক হতে পারে।কারণ উইকেট যদি স্পিন সহায়ক,স্লো ও লো টাইপের হয় তাহলে পাকিস্তানকে ব্যাটিং-বোলিং দুই ক্ষেএে কিছুটা এগিয়ে রাখতে হবে।কারণ স্লো উইকেটে অষ্ট্রেলিয়ার বোলিংয়ে সমস্যা নাহলেও ব্যাটিংয়ে সমস্যা হতে পারে। আবার উইকেট যদি সবুজ হয় তাহলে দুদলের ফিফটি ফিফটি চান্স থাকবে।


দুদলের হেড টু হেড পরিসংখ্যান


অষ্ট্রেলিয়া ও পাকিস্তান ইতিমধ্যে ২২টি আন্তর্জাতিক টিটুয়েন্টি ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে যেখানে ১৩টি ম্যাচে পাকিস্তান জয়লাভ করেছে এবং ৯টি ম্যাচে অষ্ট্রেলিয়া জয়ী হয়েছে।