WHAT'S NEW?
Loading...

গরমে শরীর শীতল রাখতে যা খাবেন

                                                               

প্রিয় ক্রিকেট ডটকমঃ বলা হয় খাবারের সাথে শরীরের কর্মক্ষমতা ও সুস্থতার নিবিড় সম্পর্ক রয়েছে।গরমে তাই শরীরকে সুস্থ ও সবল রাখার জন্য সঠিক খাবার নির্বাচন জরুরী। চারদিকে করোনার প্রাদুর্ভাব চলছে। এছাড়া গরমের তীব্রতা বাড়ছে।এসব কিছু বিবেচনায় এই সময়ে শরীরকে সুস্থ ও ফিট রাখতে অবশ্যই খাবারের ক্ষেত্রে সচেতন হতে হবে।গরমে শরীরকে শীতল রাখা সবচেয়ে জরুরী।এ সময়ে শরীরকে শীতল রাখলে কর্মক্ষমতা বেড়ে যায় এবং রোগব্যধি কম হয়।গরমে শরীরকে শীতল বা ঠান্ডা রাখতে যেসব খাবার উপকারী সেগুলো নিয়ে এখানে আলোচনা করব।

গরমের সেরা খাবার

বিশেষজ্ঞরা বলছেন গরমে শরীরকে সুস্থ রাখতে চাইলে খাবারের বিষয়ে সচেতন হতে হবে। তাদের মতে এই গরমে শরীরকে সুস্থ ও কর্মক্ষম রাখার জন্য মসলাযুক্ত ও শুষ্ক খাবার বাদ দিয়ে তরল খাবার বেশি খেতে হবে। এছাড়া পানীয়ের উপর বেশি নির্ভর করতে হবে। বিশেষজ্ঞরা বলেন গরমে এমন খাবার বেশি খেতে হবে যেগুলোতে পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি রয়েছে।গরমে শুষ্ক খাবার বেশি খেলে তা হজমে সমস্যা করবে এবং শরীরে অস্বস্তি তৈরি করতে পারে।

গরমে তরমুজ উপকারী


এই সময়ে গ্ৰীষ্মের তীব্র গরমে শরীরে পানিশূন্যতা দেখা দিতে পারে।আর তাই গরমে শরীরে প্রশান্তি পেতে তরমুজ খেতে পারেন।এই সময়ে তরমুজ বেশ সহজলভ্য ও সস্তা। তরমুজে প্রায় ৯০ শতাংশ পানি থাকায় এটি গরমে শরীরকে শীতল রাখতে সাহায্য করে।


শসা গরমে স্বস্তিদায়ক

শসা গরমের এক আদর্শ সবজি।এই সময়ে শরীরকে শীতল রাখতে শসা খেতে পারেন।গ্ৰীষ্মের এই সবজিতে প্রচুর পরিমাণে পানি রয়েছে।তাই এই সময়ে শরীরের পানিশূন্যতা দূর করতে শসা এক উৎকৃষ্ট খাবার।শসা দিয়ে সালাদ তৈরি করে খেতে পারেন।

সবুজ শাক খেতে পারেন

তীব্র গরমে পানিশূন্যতা ও ক্লান্তিবোধ এক সাধারণ সমস্যা।এসব সমস্যা দূর করার জন্য এই সময়ে নিয়মিত সবুজ শাক খেতে পারেন। সবুজ পাতার শাকে প্রচুর পরিমাণে পানি থাকে। সবুজ শাক গরমের কালে শরীরকে শীতল রাখার পাশাপাশি অতিরিক্ত ওজন নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে। এছাড়া সবুজ শাক শরীরের তাপমাত্রা স্বাভাবিক রাখতে সহায়তা করে।


গরমে টকদই উপকারী

গরমে শরীরকে শীতল রাখতে টকদই এক আদর্শ খাবার। এছাড়া এই সময়ে দইয়ের পানীয় হিসেবে বাজারে মাঠা পাওয়া যায় এটিও গরমে স্বস্তিদায়ক। টকদই ও মাঠা গরমে শরীরের পানির ঘাটতি দূর করে। বিশেষজ্ঞরা বলেন এই সময়ে দিনের খাবারের সাথে টকদই,মাঠা খেলে শরীরে প্রশান্তি পাবেন।

খেতে পারেন পুদিনাপাতা

গরমে শরীরের ঠান্ডা ও প্রশান্তির জন্য পুদিনাপাতা উপকারী। গরমে শরীরকে শীতল রাখার জন্য নিয়মিত পুদিনাপাতা খেতে পারেন। পুদিনাপাতা দিয়ে বিভিন্ন ধরণের খাবার তৈরি করে খেতে পারেন।


দুধ ও মধু


গরমের এই সময়ে শরীরকে শীতল রাখা গুরুত্বপূর্ণ।কারণ শরীর শীতল থাকলে অস্বস্তি কমবে কাজে শক্তি পাবেন।আর এজন্য এই গরমে শরীরকে শীতল রাখতে প্রতিদিন সকালে এক গ্লাস দুধে কয়েক ফোঁটা মধু মিশিয়ে খেতে পারেন।এতে শরীর শীতল হবে।

ভাবের পানি

তীব্র গরমে শরীরে প্রশান্তি লাভ করার জন্য ভাবের পানি এক শ্রেষ্ঠ পানীয়। শরীরের পানিশূন্যতা দূর করার পাশাপাশি শরীরে শক্তি যোগাতে ডাবের পানি অতুলনীয়। তীব্র গরমে শরীরকে সুস্থ ও শীতল রাখার জন্য তাই ভাবের পানি খেতে পারেন।

লেবুর শরবত

গরমে অতিরিক্ত ঘামের জন্য শরীরে পানিশূন্যতা সৃষ্টি হতে পারে।আর এক্ষেত্রে লেবুর তৈরি শরবত হতে পারে এক চমৎকার পানীয়। লেবুর শরবত এই সময়ে শরীরের পানিশূন্যতা দূর করার সাথে সাথে শক্তিও যোগাবে। বাজারের বিভিন্ন কৃএিম শরবতের বদলে লেবুর তৈরি শরবত নিজে তৈরি করে খেতে পারেন।


সর্তকতা

১.গরমে শরীরকে শীতল ও সুস্থ রাখতে চাইলে শুষ্ক ও অধিক মসলাযুক্ত খাবার এড়িয়ে চলুন।
২.গরমের এই সময়ে বাজারে বিভিন্ন মুখরোচক কোল্ড ড্রিংকস পাওয়া যায় যা অতিমাত্রায় পান করলে আমাদের শরীরের ওজন বেড়ে যায় ও শরীরে অস্বস্তি তৈরি করে।
৩.গরমে শরীর শীতল ও ফিট রাখতে কৃএিম কোল্ড ড্রিংকস যথাসম্ভব এড়িয়ে চলুন।