WHAT'S NEW?
Loading...

অবসরে ইউসুফ পাঠান

                                                                   

প্রিয় ক্রিকেট ডটকমঃ ভারতের তারকা অলরাউন্ডার ইউসুফ পাঠান সবধরণের ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন। ভারতের দুটি গুরুত্বপূর্ণ বিশ্বকাপ শিরোপা জয়ের অন্যতম নায়ক এই অলরাউন্ডার ক্রিকেট মাঠে দুর্দান্ত সব পারফরম্যান্সের জন্য স্মরণীয়। এবং বিদায়ের ক্ষণে ইউসুফ পাঠান তাকে সাপোর্ট দেয়ার জন্য পরিবার,বন্ধু,সমর্থক,কোচ ও দলকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন । সেই সাথে ভারতীয় দলকে প্রতিনিধিত্ব করতে পেরে নিজেকে গর্বিত মনে করেন একথাও জানান ইউসুফ পাঠান (সূত্র:ক্রিকবাজ)।

ইউসুফ পাঠানের ক্যারিয়ার ও অন্যান্য

ইউসুফ পাঠান ভারতের জাতীয় দলের অনেকগুলো গুরুত্বপূর্ণ  সাফল্যের অন্যতম সহযোগী। তিনি টেস্ট ক্রিকেট খেলেননি তবে ভারতের হয়ে ওয়ানডে ও টিটুয়েন্টি ক্রিকেটে দারুণ সময় কাটিয়েছেন।২০০৭এ ভারতের টিটুয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ে ইউসুফ পাঠানের গুরুত্বপূর্ণ অবদান রয়েছে  । এছাড়া ২০১১ সালে ভারতের ওয়ানডে বিশ্বকাপজয়ী দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য এই অলরাউন্ডার। ইউসুফ পাঠান জাতীয় দলের পাশাপাশি ফাস্টক্লাস ক্রিকেটেও দারুণ সব পারফরম্যান্স উপহার দেন। আইপিএলের ইতিহাসে সেরা অলরাউন্ডারদের একজন ইউসুফ পাঠান। আইপিএলে এই অলরাউন্ডারের মাএ ৩৭বলে সেঞ্চুরির রেকর্ড রয়েছে।২০১০সালে আইপিএলে মাএ ৩৭বলে সেঞ্চুরির অবিশ্বাস্য কীর্তি গড়েন এই অলরাউন্ডার।

যেসব দলে খেলেছেন

ইউসুফ পাঠান ভারতের জাতীয় দল ছাড়াও বিশ্বের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ লিগে খেলেছেন। ইউসুফ পাঠান ক্রিকেট ক্যারিয়ারে আইপিএল টিম রাজস্থান রয়্যালস, কেকেআর, সানরাইজার্স হায়দরাবাদ,কাউন্টি দল এস্যাক্স প্রভৃতির হয়ে খেলেছেন।

ওয়ানডে ক্যারিয়ার

ইউসুফ পাঠান ভারতের হয়ে ওয়ানডে ক্রিকেটে দারুণ একটি সময় কাটিয়েছেন। ভারতের ২০১১ওয়ানডে বিশ্বকাপ জয়ের অন্যতম এক কান্ডারি ছিলেন এই অলরাউন্ডার। ইউসুফ পাঠান ভারতের হয়ে ৫৭টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছেন। ওয়ানডেতে তাঁর ২টি শতক ও ৩টি ফিফটি আছে। ওয়ানডে ক্রিকেটে বল হাতে ৩৩টি উইকেটও নিয়েছেন এই অলরাউন্ডার।

টিটুয়েন্টি ক্যারিয়ার

ইউসুফ পাঠান ক্যারিয়ারে ২২টি টিটুয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন যেখানে মোট ২৩৬ রান করেছেন। টিটুয়েন্টি ক্রিকেটে বল হাতে ২২ম্যাচে ১৩টি উইকেট নিয়েছেন এই অলরাউন্ডার।

আইপিএল ক্যারিয়ার

আইপিএলে ইউসুফ পাঠানের অসাধারণ কিছু ইনিংস রয়েছে। এবং পাওয়ারহিটার হিসেবে দীর্ঘদিন আইপিএলকে মাতিয়েছেন এই অলরাউন্ডার।বল হাতেও ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে তাঁর ভালো রেকর্ড রয়েছে। আইপিএলে ইউসুফ পাঠান মোট ১৭৪টি ম্যাচ খেলেছেন । এবং আইপিএলে ইউসুফ পাঠানের নামের পাশে ১টি শতক,১৩টি ফিফটিসহ মোট ৩২০৪ রান রয়েছে।

ইউসুফ পাঠানের উল্লেখযোগ্য কিছু রেকর্ড

ইউসুফ পাঠানের বিধ্বংসী ব্যাটিং জাতীয় দলের বাইরে আইপিএল ও ভারতের ফাস্টক্লাস ক্রিকেটেও অব্যাহত ছিল। ইউসুফ পাঠানের পাওয়ারফুল হিটিংগুলো ক্রিকেট দর্শকদের জন্য অন্যরকম আনন্দের অনুসঙ্গ হয়ে আছে।এর কিছু কিছু অংশ এখনো ইউটিউব এবং স্পোটর্স টিভিগুলোর পর্দায় ঝড় তুলে দর্শকদের আন্দোলিত করে। ইউসুফ পাঠানের ক্যারিয়ারের উল্লেখযোগ্য কিছু রেকর্ড এখানে তুলে ধরছি।

রঞ্জি ট্রফিতে ১৮বলে ফিফটি 

ইউসুফ পাঠান জাতীয় দলের পাশাপাশি ভারতের প্রথমশ্রেণীর ক্রিকেটেও জনপ্রিয় এক নাম।রঞ্জি ট্রফিতে বেশকিছু রেকর্ড রয়েছে এই অলরাউন্ডারের নামের পাশে।এমনই এক কীর্তি হচ্ছে ২০১২সালে রঞ্জি ট্রফির এক ম্যাচে মাএ ১৮ বলে হাফসেঞ্চুরি করে সবার নজর কাড়েন।

দুলিপ ট্রফিতে ৫১বলে শতক

ভারতের জনপ্রিয় সব লিগেই ইউসুফ পাঠান খেলেছেন।তেমনি দুলিপ ট্রফিতে ইউসুফ পাঠানের অসাধারণ কিছু রেকর্ড রয়েছে। ইউসুফ পাঠান দুলিপ ট্রফিতে ২০০৮/০৯ সেশনে এক ম্যাচে মাএ ৫১বলে সেঞ্চুরি করেন ।

আইপিএলে ১৫বলে ফিফটি

আইপিএলের জনপ্রিয় এক তারকা ইউসুফ পাঠান। আইপিএলে সেঞ্চুরিসহ বেশকিছু রেকর্ড রয়েছে এই অলরাউন্ডারের নামের পাশে। ইউসুফ পাঠান ২০১৪সালের আইপিএলে কেকেআরের হয়ে এক ম্যাচে ১৫বলে ফিফটি হাঁকান।

ভারতীয়দের মধ্যে আইপিএলে দ্রুততম সেঞ্চুরি

ইউসুফ পাঠান ২০১০সালে আইপিএলের এক ম্যাচে মাঠে ৩৭ বলে শতক হাঁকান যা ভারতীয় হিসেবে আইপিএলে দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ড।

বিজয়হাজারে ট্রফিতে ৪০বলে শতক

ইউসুফ পাঠান ভারতের প্রথমশ্রেণীর ক্রিকেটেও দুর্দান্ত সব পারফরম্যান্স করেছেন।২০১০সালে বিজয়হাজারে ট্রফির এক ম্যাচে  ইউসুফ পাঠান মাএ ৪০ বলে শতক হাঁকান।