WHAT'S NEW?
Loading...

২০২০ সালে ক্রিড়াবিশ্বের হালচাল

                                                                


ক্রিড়াবিশ্বের ক্যালেন্ডার থেকে আরো একটি বছর চলে গেল।২০২০ সালে বৈশ্বিক ক্রিড়াজগতের জন্য বড় হতাশার কারণ ছিল করোনা মহামারী।ট্রাম্পের পরাজয় , চীনের করোনা নিয়ে লুকোচুরি কিংবা লাদাকে চীন-ভারত সংঘর্ষ সবকিছুর চেয়ে এবার বিশ্বের আলোচিত ঘটনা করোনা।করোনার ছোবলে বিশ্বের সব মানবজাতির জন্য এই বছরটি ছিল চ্যালেঞ্জের।আর এসবকিছুর ভিড়ে ক্রিড়াবিশ্বে ছিল সুখদুঃখের দোলাচল।এ বছর বিশ্বের বেশকজন তারকা ক্রিড়াবিদ পৃথিবী ছেড়ে গেছেন চিরতরে। দেশ-বিদেশের বেশকজন তারকা ক্রিড়াবিদ এবছর পৃথিবী থেকে চিরবিদায় নিয়েছেন। ফুটবলের সুপারম্যান দিয়োগো ম্যারাডোনা, সাবেক ক্রিকেটতারকা ডিন জোন্স , বাস্কেটবল কিংবদন্তি কোবি ব্রায়েন্ট, বাংলাদেশের সাবেক ফুটবলার ও ক্রিড়াসংগঠক বাদল রায় এ বছর মৃত্যুবরণ করেছেন।আর এসবের সাথে ক্রিড়াবিশ্বের জন্য বেশকিছু সুখবরও ছিল। আইপিএলের মত জনপ্রিয় ক্রিকেট লিগ শেষপর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয়েছে। এছাড়া এলপিএল,বিগব্যাশ, বঙ্গবন্ধু টিটুয়েন্টি কাপ,পিএসএলসহ দেশ-বিদেশের বেশকিছু ক্রিকেট ইভেন্ট মাঠে গড়িয়েছে। এছাড়া বাংলাদেশের তারকা ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে এ বছর মাঠে ফিরেছেন।।২০২০সালের ক্রিড়াবিশ্বের সুখদুঃখের গল্প নিয়ে এই লেখা।

চলে গেলেন দিয়েগো ম্যারাডোনা

নিঃসন্দেহে ২০২০সালের ক্রিড়াবিশ্বের সবচেয়ে দুঃখজনক ঘটনা ছিল আর্জেন্টাইন ফুটবল কিংবদন্তি দিয়েগো ম্যারাডোনার মৃত্য। এ বছর বিশ্বের কোটি কোটি দর্শককে শোকসাগরে ভাসিয়ে পৃথিবী থেকে চিরবিদায় নেন এই কিংবদন্তি ফুটবলার।আর ক্রিড়াবিশ্ব হারায় তার এক শ্রেষ্ঠ বন্ধুকে।২৫নভেম্বর,২০২০ ম্যারাডোনা চলে যান পরপারে।৮৬বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনার শিরোপাজয়ের মূল নায়ক ছিলেন ম্যারাডোনা।৯০বিশ্বকাপেও আর্জেন্টিনাকে ফাইনালে তুলতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন এই কিংবদন্তি।

কোবি ব্রায়ান্টের চিরবিদায়

২০২০ সালের ক্রিড়াবিশ্বের জন্য একটি দুঃখজনক খবর ছিল বিখ্যাত বাস্কেটবল খেলোয়াড় কোবি ব্রায়ান্টের হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় মৃত্যু।বছরের শুরুতে এটি ছিল ক্রিড়াবিশ্বের জন্য এক বেদনাদায়ক খবর।কোবি ব্রায়ান্ট ছিলেন পাঁচবারের এনবিও চ্যাম্পিয়ন । এছাড়া কোবি ২০০৮ ও ২০১২ সালের অলিম্পিক বাস্কেটবলে স্বর্ণপদক জয় করেন।

ডিন জোন্সের চলে যাওয়া

অষ্ট্রেলিয়ার সাবেক তারকা ক্রিকেটার ডিন জোন্স এ বছর মৃত্যবরণ করেন। তিনি জনপ্রিয় ভাষ্যকার হিসেবে ক্রিকেটবিশ্বে সুপরিচিত ছিলেন। এছাড়া জোন্স ১৯৮৭ সালের অষ্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপজয়ী দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন।  আইপিএলের ধারাভাষ্য দিতে জোন্স মুম্বাইয়ে অবস্থান করছিলেন এবং সেখানে এ বছরের ২৪সেপ্টেম্বর তিনি আকস্মিক স্ট্রোকে মৃত্যুবরণ করেন।জোন্সের আকস্মিক মৃত্যু ক্রিকেটের জন্য ছিল বছরের এক বড় ধাক্কা।

চেতন চৌহানের বিদায়

২০২০ সালে ক্রিকেটের আরেক নক্ষএ ঝরে যান।আর সেই নক্ষএ হচ্ছেন ভারতের সাবেক ব্যাটসম্যান চেতন চৌহান। ভারতের হয়ে ৪০টি টেষ্ট ও ৭টি ওয়ানডে খেলেছেন এই ব্যাটসম্যান।

পাওলো রসির চলে যাওয়া

ইতালির সাবেক তারকা ফুটবলার পাওলো রসিও না ফেরার দেশে চলে গেছেন ২০২০ সালে। এবং ক্রিড়াবিশ্বের জন্য এটিও ছিল বেদনাদায়ক সংবাদ।

রেসলার লুক হারপারের চিরবিদায়

রেসলিং জগতের জন্য ২০২০ সাল ছিল বেদনাদায়ক।কারণ এ বছর রেসলিং জগত হারিয়েছে তাদের জনপ্রিয় রেসলার লুক হারপারকে।২০২০ সালে মাএ ৪১ বছর বয়সে না ফেরার দেশে চলে যান এই কিংবদন্তি রেসলার।

আরো যারা পৃথিবী ছেড়ে গেলেন

২০২০সালে দেশ ও বিদেশের বেশকিছু তারকা ক্রিড়াবিদ নাফেরার দেশে চলে গেছেন।এক্ষেএে সাবেক উইন্ডিজ গ্ৰেট এডভারটন উইকস, বাংলাদেশের প্রথম বাঁহাতি স্পিনার রামচাঁদ গোয়ালা , বাংলাদেশ জাতীয় দলের সাবেক ফুটবলার নওশেরুজ্জামান,বাদল রায়,রেফারি আব্দুল আজিজ অন্যতম। এদের বিদায়ে ২০২০ সালে ক্রিড়াবিশ্ব ছিল শোকাহত।

স্থগিত টিটুয়েন্টি বিশ্বকাপ, বাতিল বিপিএল

২০২০ সালে ক্রিকেট বিশ্বের জন্য এক বড় ধাক্কা ছিল টিটুয়েন্টি বিশ্বকাপ শেষপর্যন্ত স্থগিত হয়ে যাওয়া। ক্রিকেটের এই জনপ্রিয় আন্তর্জাতিক আসর প্রতি দুই বছর পরপর অনুষ্ঠিত হয়।তবে এবার করোনা জটিলতার কারণে শেষপর্যন্ত টিটুয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিত করা হয়।২০২০ সালের বিপিএল শেষপর্যন্ত বাতিল করা হয়।

তবু যা ছিল ইতিবাচক

তবু ২০২০ সালে করোনা আর বেশকিছু তারকার মৃত্যুর পরও ক্রিড়াবিশ্বের জন্য বেশ কিছু ইতিবাচক সংবাদও ছিল।করোনার বাঁধার মধ্যেও বিশ্বব্যাপী  ক্রিড়ার প্রবাহ শেষপর্যন্ত আবার চালু হয়েছে। এবং ধীরে ধীরে ক্রিড়াবিশ্ব সচল হচ্ছে। এছাড়াও আরো যা ছিল ইতিবাচক তেমন কিছুই এখানে তুলে ধরছি।

অবশেষে অনুষ্ঠিত হলো আইপিএল

অনেক জল্পনা কল্পনার পর করোনার মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মেনে অনুষ্ঠিত হলো আইপিএল।তবে এ বছরের আইপিএল স্মরণীয় হয়ে থাকবে দর্শকবিহীন ক্রিকেটের জন্য।কারণ ২০২০সালের আইপিএলে দর্শকরা সরাসরি মাঠে বসে খেলা দেখার সুযোগ পাননি।প্রতিটি ফ্রাঞ্ছাইজির জন্য ছিল আলাদা আলাদা থাকা খাওয়া ও স্বাস্থ্যসুরক্ষার ব্যবস্থা। ২০২০সালে আইপিএলের পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটও কিছু কিছু মাঠে গড়িয়েছে।

বঙ্গবন্ধু টিটুয়েন্টি কাপ এবং সাকিবের ফেরা

এ বছর দেশের ক্রিড়ার বড় খবর ছিল বঙ্গবন্ধু টিটুয়েন্টি কাপ আয়োজন এবং দেশসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ক্রিকেটে ফেরার ঘটনা। বঙ্গবন্ধু টিটুয়েন্টি কাপে দেশের নবীন ও অভিজ্ঞ প্লেয়ারদের সমন্বয়ে চমৎকার ক্রিকেট অনুষ্ঠিত হয়।আর এর মধ্যে সাকিব আল হাসানের ফেরা ছিল বাড়তি পাওয়া।

লিখেছেন: প্রভাকর চৌধুরী