WHAT'S NEW?
Loading...

যারা প্রাথমিকের শিক্ষক হতে চান

                                                           


প্রিয় ক্রিকেট ডটকম: প্রাথমিকে সহকারি শিক্ষক পদে আবেদনের সময় ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে।পএিকা মারফত জানা যায় এবার প্রায় ১৩ লাখ প্রার্থী প্রাথমিক সহকারি শিক্ষক পদে নিয়োগের জন্য আবেদন করেছেন। এছাড়া এবার নারী-পুরুষ সবপ্রার্থীর  শিক্ষাগত যোগ্যতা স্নাতক করা হয়েছে।অর্থাৎ এবার প্রাথমিকে সহকারি শিক্ষক হতে চাইলে পুরুষের সাথে নারীদের শিক্ষাগত যোগ্যতাও স্নাতক লাগবে।


কিভাবে প্রস্তুতি নেবেন

এবার প্রাথমিক সহকারি শিক্ষক পদে বিপুল সংখ্যক প্রার্থী আবেদন করেছেন। সুতরাং এবার নিয়োগ পরীক্ষা অনেক বেশি প্রতিযোগিপূর্ণ হবে একথা বলা যায়।আর এবার যেহেতু সবার যোগ্যতা স্নাতক তাই প্রতিযোগিতাও খুব বেশি হবে।আর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ খবর হলো প্রাথমিকের সহকারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নের মান আগের চেয়ে বহুগুণ বেড়েছে।


কোন কোন বিষয়ে প্রশ্ন হয়

সাধারণত প্রাথমিক সহকারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন বেশ ব্যালান্সড হয়ে থাকে।আর বিশ্লেষণ করলে দেখা যায় আগের চেয়ে প্রশ্নের মান ধীরে ধীরে আরো উন্নত হচ্ছে।এ নিয়োগের প্রশ্ন সাধারণত এমসিকিউ টাইপের হয়ে থাকে। প্রাথমিকে সহকারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় বাংলা, ইংরেজি, গণিত, সাধারণ জ্ঞান (বাংলাদেশ, মুক্তিযুদ্ধ,সমকালিন আন্তর্জাতিক বিষয, গুরুত্বপূর্ণ আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান) এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক প্রশ্ন হয়ে থাকে।তবে প্রস্তুতি শুরুর আগে বিগত বিভিন্ন সময়ের প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের প্রশ্নগুলো ভালো করে দেখে নেবেন।এক্ষেএে ইন্টারনেটের সহায়তা নিতে পারেন অথবা বাজারে এ সম্পর্কিত বই পাবেন।


বাংলা প্রস্তুতি

প্রাথমিক সহকারি শিক্ষক পদে নিয়োগ পরীক্ষায় বাংলা ব্যাকরণ ও বাংলা সাহিত্যের  বিভিন্ন মৌলিক বিষয়ে প্রশ্ন হয়ে থাকে। এক্ষেএে সমাস,সন্ধি,বানান,সমার্থক শব্দ, বিপরীত শব্দ, পারিভাষিক শব্দ,শুদ্ধ বাক্য চিহ্নিত করণ ইত্যাদি টপিক থেকে প্রশ্ন করা হয়।ফলে বাংলা বিষয়ে ব্যাপক প্রস্তুতির বিকল্প নেই। আর  এসব বিষয়ে ভালো ধারণা পেতে যেসব বই পড়তে পারেন তার একটি তালিকা দিচ্ছি।

১.পুথিনিলয় প্রকাশের উচ্চমাধ্যমিক বাংলা দ্বিতীয় পত্র ।

২.বাংলা ভাষা ও সাহিত্য জিজ্ঞাসা -ড.সৌমিএ শেখর


ইংরেজি প্রস্তুতি

ইংরেজি বিষয়ের প্রশ্ন আগের চেয়ে এখন আরো ভালো হচ্ছে।ফলে ইংরেজি প্রস্তুতির ক্ষেত্রে বেশ সচেতন হতে হবে।ব্যাপক অনুশীলনের কোন বিকল্প নেই। ইংরেজির ক্ষেএে বিভিন্ন ধরণের গ্ৰামাটিকেল এরর, অনুবাদ ইত্যাদি সম্পর্কে প্রশ্ন হয়ে থাকে।আর এসব বিষয় ব্যাপক অনুশীলন ছাড়া আয়ত্ত্ব করা কঠিন। ইংরেজিতে ভালো প্রস্তুতির জন্য যা পড়তে পারেন তার কিছু টিপস তুলে ধরছি।ইংরেজিতে ভালো প্রস্তুতির জন্য এই বইগুলো পড়তে পারেন-

১.English for competitive exam(writer Md Fazlul haque)

২.ফ্রেন্ডস প্রকাশনির যেকোন একটি গ্ৰামার।


গণিত প্রস্তুতি

গণিত প্রস্তুতি যেকোন সরকারি চাকরির পরীক্ষার গুরুত্বপূর্ণ অংশ।আর গণিতে ভালো করার জন্য ব্যাপক অনুশীলনের বিকল্প নেই। বেশি বেশি গণিত অনুশীলন করলে প্রস্তুতির ক্ষেত্রে আত্মবিশ্বাস বাড়ে।গণিতে ভালো প্রস্তুতির জন্য অষ্টম ও নবম শ্রেণীর গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায় থেকে গণিত অনুশীলন করুন।সূএগুলো আয়ত্ত্ব করুন।


সাধারণ জ্ঞান (বাংলাদেশ বিষয়)

সাধারণ জ্ঞান প্রস্তুতির ক্ষেত্রে প্রথমেই বাংলাদেশ বিষয়াবলি গুরুত্বপূর্ণ।এক্ষেএে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক প্রশ্ন, সংবিধান বিষয়ক প্রশ্ন , বিভিন্ন ঐতিহাসিক ঘটনা ইত্যাদি বেশি গুরুত্বপূর্ণ।এসব বিষয়ে ভালো প্রস্তুতির জন্য অষ্টমশ্রেণীর বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় বইটি পড়তে পারেন। বাংলাদেশ ও বিশ্বের সাম্প্রতিক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জানার জন্য মাসিক ক্যারেন্ট অ্যাফেয়ার্স পড়তে পারেন।


সাধারণ জ্ঞান (আন্তর্জাতিক , বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি)

সাধারণ জ্ঞান বিষয়ে সমকালিন আন্তর্জাতিক বিভিন্ন বিষয়ের তথ্য কোথাও লিখে রাখুন। বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ আন্তর্জাতিক সংগঠন সম্পর্কে জানতে হবে।এসব বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য খাতায় লিখে শিখতে পারেন। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক প্রশ্নের জন্য অষ্টমশ্রেণীর বিজ্ঞান বইটি পেন্সিল দিয়ে  দাগ দিয়ে পড়তে পারেন। সাধারণ জ্ঞানে ভালো করার জন্য বিগত বিভিন্ন বিসিএস প্রিলির (৩৫থেকে ৪০তম) বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ও আন্তর্জাতিক বিষয়াবলির প্রশ্নগুলো সলভ করতে পারেন।


মডেলটেষ্ট ও কোচিং প্রসঙ্গ

বিপুলসংখ্যক প্রার্থী এবার প্রাথমিক সহকারি শিক্ষক পদে আবেদন করেছেন। এছাড়া প্রশ্নের মান এখন আগের চেয়ে ভালো হচ্ছে।এসব বিষয় বিবেচনায় নিয়ে যারা খুব ব্যস্ত থাকেন তাদের ক্ষেএে কোচিং করলে উপকার হতে পারে।বিশেষত কোন ভালো  কোচিংয়ে মডেল টেস্টের জন্য ভর্তি হতে পারেন। এছাড়া ইন্টারনেটের বিভিন্ন ট্রাষ্টেডসাইট থেকেও মডেল টেষ্ট উওরসহ ডাউনলোড করতে পারেন। নিয়মিত মডেলটেষ্ট দিলে আত্মবিশ্বাস বাড়বে এবং সেইসাথে দুর্বলতা বুঝতে পারবেন।তবে মনে রাখবেন মোবাইল বা ল্যাপটপের পড়া খুব কমই মনে থাকে। তাই ছাপা বইকে গুরুত্ব দিন বা খাতায় লিখে শিখুন।