WHAT'S NEW?
Loading...

বিস্ময়কর ডিভিলিয়ার্স !

                                                             


 ক্রিকেটে এবি ডিভিলিয়ার্সকে একটি ব্রান্ড বলা যায়। এবি দুর্দান্ত এক উইকেটরক্ষক।এবি আবার দারুণ এক গেমচেঞ্জার। ক্রিকেটে এরকম প্রতিভাবান ও ইনোভেটিভ প্লেয়ার কালেভদ্রে দেখা যায়।এবি মানেই এক টোটাল ক্রিকেটারের ছবি। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য হল ডিভিলিয়ার্স শুধু উঁচু মানের ব্যাটসম্যানই নন  ক্রিকেট ছাড়াও তিনি আরো বহু খেলায় জাতীয় পর্যায়ে প্রতিনিধিত্ব করেছেন যা সত্যিই চমকপ্রদ।এবি ডিভিলিয়ার্সের বিস্ময়কর প্রতিভার কিছু তথ্য এখানে পাবেন। তথ্যসূত্র:স্পোর্টসউইকি।

জাতীয় পর্যায়ে হকি খেলেছেন এবি

এবি ডিভিলিয়ার্স ক্রিকেটের পাশাপাশি হকি খেলায়ও দক্ষ ছিলেন। সবচেয়ে বিস্ময়কর তথ্য হচ্ছে তিনি দক্ষিণ আফ্রিকার জাতীয় জুনিয়র হকি দলে খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন।

ফুটবলেও সমান দক্ষ

হয়তো ক্রিকেটার নাহলে এবি ডিভিলিয়ার্স ফুটবলার হতেন একথা বলাই যায় কারণ এবি ফুটবলে এতোটাই ভালো ছিলেন যে তিনি দক্ষিণ আফ্রিকার জাতীয় জুনিয়র ফুটবল টিমে ডাক পেয়েছিলেন ।

জুনিয়র রাগবি দলের ক্যাপ্টেন ছিলেন

এবি ক্রিকেটের মত রাগবি খেলায়ও সফলতা পেয়েছেন। ডিভিলিয়ার্স রাগবি খেলায় খুব ভালো ছিলেন।তিনি রাগবিতে এতোটাই সফলতা দেখান যে তাকে দক্ষিণ আফ্রিকার জুনিয়র রাগবি দলের ক্যাপ্টেন মনোনিত করা হয়।

দুর্দান্ত এক সাঁতারু এবি

এবি ডিভিলিয়ার্স মানে চারছয়ের ফুলঝুরি।এবি উইকেটে থাকলে ব্যাটিং হয়ে উঠে এক অন্যরকম শিল্প।জানলে অবাক হবেন এসবের বাইরেও এবি ডিভিলিয়ার্স দুর্দান্ত এক সাঁতারু ছিলেন।তিনি ৬বার দক্ষিণ আফ্রিকার স্কুল সাঁতার প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেন।

ছিলেন সেরা দৌড়বিদ

এবি শুধু ক্রিকেটে নিজেকে বেধে রাখেননি এর বাইরে অসাধারণ দৌড়বিদ হিসেবেও তাঁর সুনাম রয়েছে। তিনি দক্ষিণ আফ্রিকার জুনিয়র অ্যাথলেট হিসেবে ১০০মিটার দৌড়ে সেরা হবার গৌরব অর্জন করেন।

জাতীয় জুনিয়র টেনিস টিমের সদস্য

এবি ডিভিলিয়ার্স প্রায় সব খেলায় দক্ষ ছিলেন। ক্রিকেটে এবি ডিভিলিয়ার্সের তুলনা খুব বেশি নেই। মজার বিষয় হল এবি ক্রিকেটের পাশাপাশি অসাধারণ এক টেনিস প্লেয়ার ছিলেন। তিনি একসময় দক্ষিণ আফ্রিকার জুনিয়র ডেভিসকাপ টেনিস টিমের সদস্য ছিলেন। 

ছিলেন জুনিয়র ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়ন

ব্যাটমিন্টন খেলায়ও দারুণ দক্ষতা দেখান এবি। তিনি দক্ষিণ আফ্রিকার আন্ডারনাইটিন ব্যাডমিন্টনে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেন।

লিখেছেন: প্রভাকর চৌধুরী