WHAT'S NEW?
Loading...

বাংলাদেশের নতুন বোলিং কোচ ওটিস গিবসনের ক্যারিয়ার ও অন্যান্য

                     
বাংলাদেশ জাতীয়  ক্রিকেট দলের নতুন বোলিং কোচ  নির্বাচিত হয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বংশোদ্ভূত ওটিস গিবসন। উইকিপিডিয়ার সৌজন্যে  সদা হাস্যোজ্জ্বল এ কোচের ক্রিকেট ক্যারিয়ার এবং কোচিং ইতিহাস সম্পর্কে এখানে আলোচনা করব।

               জন্ম ও নিজদেশ


ওটিস গিবসন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বারবাডোসে ১৯৬৯খ্রিষ্টাব্দে জন্মগ্ৰহন করেন।ক্রিকেট ক্যারিয়ার খুব বেশি সমৃদ্ধ নয় তবে তার কোচিং ক্যারিয়ার বেশ আলোচিত। তার অধীনে ওয়েস্ট ইন্ডিজ টিটুয়েন্টি বিশ্বকাপ জেতে।
       

   ওটিস গিবসনের ক্রিকেট ক্যারিয়ার


ওটিস গিবসনের ক্রিকেট ক্যারিয়ার খুব বেশি সমৃদ্ধ নয়। ওয়েস্ট ইন্ডিজ জাতীয় টিমের হয়ে কিছুদিন খেলেছেন। তিনি মূলত ছিলেন ডানহাতি ফাষ্ট বোলার। অডিআই ক্রিকেটে বেশ কার্যকর বোলার ছিলেন গিবসন। অডিআই ক্রিকেটে একাধিকবার পাঁচ উইকেট নেবার কৃতিত্ব আছে তার।

     ওটিস গিবসনের কোচিং ইতিহাস


গিবসনের  কোচিং দর্শন হলো "রানরেট থামানো মূখ্য নয় তারচেয়ে দ্রুত উইকেট ফেলা গুরুত্বপূর্ণ।" ২০০৭খ্রিষ্টাব্দে ওটিস গিবসন ইংল্যান্ড জাতীয় দলের বোলিং কোচ হিসেবে নিয়োগ পান। তার অধীনে ২০০৯ টিটুয়েন্টি বিশ্বকাপে ইংল্যান্ড সুপার এইটে উঠে। তিনি বোলিং কোচ থাকাকালে ইংল্যান্ড চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সেমিফাইনালে কোয়ালিফাই করে।২০১০ টিটুয়েন্টি বিশ্বকাপে তার কোচিংয়ের অধীনে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সুপার এইটে উঠে। তারপর গিবসনের অধীনে নিজদেশ ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২০১১বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনাল খেলে।  তার কোচিংয়ের মাধ্যমে নিজদেশ ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২০১২ টিটুয়েন্টি বিশ্বকাপ ট্রফি জয় করে।২০১৫ খ্রিষ্টাব্দে গিবসন আবারও ইংল্যান্ডের বোলিং কোচ নির্বাচিত হন। তার অধীনে ইংল্যান্ডের বোলিংয়ের লক্ষ্যণীয় উন্নতি ঘটে।২০১৯বিশ্বকাপে তিনি দক্ষিণ আফ্রিকার হেডকোচ ছিলেন। বর্তমানে বাংলাদেশের বোলিং কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

Written by provakar chowdhury.