WHAT'S NEW?
Loading...

ছোট টিমের বড় ক্রিকেটারদের গল্প

                 
ক্রিকেটে বহু ক্রিকেটার নিজে বড় খেলোয়াড় ছিলেন কিন্তু নিজের দেশের টিম ছিল ছোট।এ প্রসঙ্গে জিম্বাবুয়ের এন্ডি ফ্লাওয়ারের নাম আগে আসে। কেনিয়ার স্টিভ টিকলোও তার সহযোগী হবেন। আফগানিস্তানের রশিদ খান এ তালিকায় থাকবেন। বাংলাদেশের সাকিব এ দলেই পড়বেন। জিম্বাবুয়ের এলটন চিগুম্বুরার নামটিও এ প্রসঙ্গে উল্লেখযোগ্য।এরা প্রত্যেকেই স্বস্ব ক্ষেত্রে প্রতিভাবান । বিশ্বসেরাদের বিভিন্ন শটলিষ্টে এদের নাম আসবেই। রশিদ খান এবং সাকিব বর্তমান ক্রিকেটের দুই বিস্ময়কর প্রতিভা।বলা হয় এরা আরও স্ট্রং কোন ক্রিকেটপ্লেয়িং টিমে খেললে বেটার রেজাল্ট পেতেন।

এন্ডিফ্লাওয়ার:

জিম্বাবুয়ের সর্বকালের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান বলা হয় এন্ডিফ্লাওয়ারকে। এন্ডিফ্লাওয়ারের মত ট্যাকনিক্যালি স্ট্রং ব্যাটসম্যান ক্রিকেটে হাতেগোনা দেখা যায়। কিন্তু জিম্বাবুয়ে টিমে তাকে যথার্থ রূপে ব্যবহার করার সুযোগ কম ছিল। অসাধারণ স্ট্যামিনার অধিকারী এন্ডি বেশ কিছু বিগ ইনিংসের মালিক।

স্টিভ টিকলো:

স্টিভ টিকলো কেনিয়ার সর্বকালের সেরা অধিনায়ক। প্রতিভাবান ব্যাটসম্যান ও অকেশনাল বোলার হিসেবেও সফল ছিলেন তিনি। লড়াকু এ ব্যাটসম্যানের দুর্ভাগ্য যে তাকে কেনিয়ার মত দুর্বল টিমে খেলতে হয়েছে।বলা হয় অন্যকোন উন্নত টিমে খেললে ক্রিকেট তার কাছথেকে আরও ভালো কিছু পেত।

রশিদ খান:

ক্রিকেটে আফগানিস্তানের যাকিছু অর্জন এর অন্যতম স্থপতি অবশ্যই রশিদ খান। অসাধারণ লেগ স্পিনার।চৌকস ডেলিভারি ও বুদ্ধিমত্তায় বর্তমান ক্রিকেটে তার সমপর্যায়ের স্পিনার খুব রেয়ার। রশিদ খান ভালো কোন টিমে খেললে ক্রিকেটকে আরও ভালো কিছু দিতে পারতেন।

সাকিব আল হাসান:

বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে বলা হয় এ যুগের ক্রিকেটের বিস্ময়। অসাধারণ ব্যাটসম্যান এবং চৌকস উইকেটটেকিং স্পিনার হিসেবে ক্রিকেটে তার তুলনা খুব কম।

এলটন চিগুম্বুরা:

বুদ্ধিমান মিডিয়াম পেসার ও গুড ফিনিশার হিসেবে এলটন চিগুম্বুরা এক বিশিষ্ট নাম। জিম্বাবুয়েতে না খেললে তিনি ক্রিকেটকে আরও বেশি কিছু দিতে পারতেন। লড়াকু ক্রিকেটার হিসেবে তার পরিচিত ব্যাপক।

Written by provakar chowdhury